২০ ঘণ্টা তল্লাশি অভিযানের মুখে সোনু সুদ

0

এফএনএস বিনোদন: করোনাকালীন বলিউডে সত্যিকারের সুপারহিরো হয়ে উঠেছেন অভিনেতা সোনু সুদ। বিপর্যস্ত মানুষের মুখে খাবার তুলে দেয়া থেকে শুরু করে, বাসস্থান, চিকিৎসা, শিক্ষাসহ নানা চাহিদার যোগান দিয়ে চলেছেন তিনি। তাকে তাই সম্মান করে অনেকে ‘মসীহ’ বলে ডাকছেন। কেউ কেউ তাকে দেবতার আসনে বসিয়ে পূজাও করছেন। সেই অভিনেতার বাড়িতে হানা দিলো আয়কর অফিসার। চললো অভিযান। সোনু সুদের বিরুদ্ধে কর ফাঁকির অভিযোগ এনে বুধবার রাতে সোনুর অফিসে পৌঁছেছিলেন আয়কর অফিসাররা। অফিসের প্রায় ৬টি জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত প্রায় টানা ২০ ঘণ্টা সেই তল্লাশি চলে। এরপর ফের এদিন সকালে অভিনেতার বাড়িতে হাজির হন আয়কর আধিকারিকরা। লখনউ-ভিত্তিক একটি রিয়েল এস্টেট ফার্মের সঙ্গে সোনু সুদের কোম্পানির সাম্প্রতিক চুক্তি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আয়কর কর্মকর্তারা। জানা যাচ্ছে সোনু সুদের কোম্পানির সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত মোট ৬টি জায়গা জরিপ করছে আয়কর দফতরের অফিসাররা। তবে এখন পর্যন্ত কোনো দলিল বাজেয়াপ্ত করা হয়নি বলেই খবর। সম্প্রতি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে দেখা করেছিলেন সোনু সুদ। তাকে দিল্লি সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের জন্য মেন্টরশিপ প্রোগ্রামের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর করা হয়েছে। আর তার ঠিক পরদিনই সোনুর অফিসে হানা আয়কর কর্তাদের। এ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকে। রাজনৈষতিক প্রতিশোধ স্পৃহা থেকেই সোনুকে হেনস্থা করা হচ্ছে বলে বিজেপির বিরুদ্ধে আঙুল তুলেছে কংগ্রেস ও শিবসেনা। যদিও বিরোধীদের আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। প্রসঙ্গত অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সঙ্গে দেখা করার পর সোনু সুদের আম আদমি পার্টিতে যোগদানের জল্পনা জোড়াল হয়। শেনা যাচ্ছিল ‘অঅচ’ -র হয়ে আগামী বছর পাঞ্জাব থেকে ভোটে লড়তে পারেন সোনু। যদিও এ বিষয়ে এক সাক্ষাৎকারে রাজনীতিতে যোগদানের জল্পনা ‘মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছেন অভিনেতা। এর আগেও তিনি বহুবার তাঁর রাজনীতিতে যোগদানের জল্পনা ছড়িয়েছিল, তবে বারবারই তা খারিজ করে দেন সোনু।

Share.

Leave A Reply