সন্ধিুর প্রত্যাশা বন্দিুত!

0

এস, এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার

(এক)

জ্ঞান র্অজনে প্রচলতি দুটি পথ আছ,ে প্রথমতঃ দখে,েশুন,েপড়ে তথা পঞ্চইন্দ্রয়ি দ্বারা সাধারণ লব্ধ জ্ঞান। দ্বতিীয়তঃ সাধারণ জ্ঞানকে ধ্যানে র্কষতি করে লব্ধ জ্ঞান বা তাত্ত্বকি জ্ঞান যা ধ্যানকি শ্রনেীর মানুষ করে থাক।ে জ্ঞানরে বহুমাত্রকি যাত্রায় সাধারণ জ্ঞান বচিার বশ্লিষেতি হয়ে বহু পথ পাড়ি দয়িে তাত্ত্বকি জ্ঞানে রূপান্তরতি হয় যা অধকিতর বুদ্ধদিীপ্ত যৌক্তকি পরপিক্ক এবং কখনও তা আধ্যাত্মকি সত্ত্বা লাভ কর।ে আমার এ প্রচষ্টোয় উভয় পথকইে যৎ সামান্য ব্যবহাররে প্রয়াস নয়িছে।

মানুয়রে বচিত্রিতা,জটলিতা ও সামাজকি প্রক্ষোপটে সীমাহীন বচৈত্রিে শোভতি বচিত্রি এ ধরনীতে জন্ম অতঃপর লালতি পালতি হওয়া মানুষ স্বভাবজাত ভাবইে বচিত্রি মননরে। বশিষে ভৌগোলকি অবস্থান,আবহাওয়া,জলবায়ু, প্রাকৃতকি সম্পদরে প্রতুলতা-অপ্রতুলতা, সংস্কৃত,িঅসম শক্ষিা ব্যবস্থা ইত্যাদরি প্রভাব মানুষরে বচৈত্রিময়তার অন্যতম প্রধান কারণ। প্রাণ বচৈত্রিে ভরপুর পৃথবিীতে লাখো চহ্নিতি প্রজাতরি বাইরে হাজার কোটি অচহ্নিতি প্রজাতওি রয়ছে।ে তদুপরি মানুষকে র্সবশ্রষ্ঠে প্রাণী হসিবেে ঘোষণা করা হয়ছেে সম্ভবত তার ভোকাল র্কড এবং বুদ্ধবিৃত্তরি ক্ষমতা থাকার কারণইে। আর বুদ্ধবিৃত্তরি আধুনকি র্চচায় এবং একবংিশ শতাব্দীর বজ্ঞৈানকি উৎর্কষতা মানুষকে অনকে বশেী জটলি ও বচিত্রি করছেে এ ব্যাপারে সন্দহে থাকার কোন অবকাশ নইে। সইে সাথে সাদা-কালো,ব্যবসা-বাণজ্যি,ভাষা,র্ধম ও সাধারণ বশ্বিাস,জাত,িরাজনীতি ইত্যাদি বষিয়গুলোর ভাবনা মানুষরে মনকে আরো বশেী জটলিতর করে তুলছে।ে তাত্ত্বকিতা বশ্লিষেণে মানুষরে মনরে লক্ষকোটি ভাবনাও মানুষরে চরত্রিে বচিত্রিতার ছাপ রখেইে চলছে।

মানুষরে ভতেরে জাগ্রত উদ্দপিনা তাড়নাকে মানুষ তনিটি র্পযায়ে সাড়া দয়িে থাক,ে প্রথম র্পযায়কে ওউ (ইদ) বল।ে এ র্পযায় অনকেটা প্রতর্বিতক (জবভষবীরাব) র্অথাৎ তাড়ানা সৃষ্টরি সাথে সাথইে অগ্র পশ্চাৎ ববিচেনা না করে তাৎক্ষনকি চাওয়াটাকে বাস্তবায়ন করার জন্য প্রবৃত্ত হওয়া। দ্বতিীয র্পযায়কে ঊমড় (ইগো) বল।ে এ র্পযায়ে তাড়না উপলব্ধরি সাথে সাথে সাড়া না দয়িে একটু এদকি ওদকি চন্তিা কর,ে অতপর কাজটি করবে ক-িনা সদ্ধিান্ত নয়িে থাক।ে ৩য় র্পযায় ঝঁঢ়বৎ ঊমড় নামে পরচিতি। এ র্পযায়ে তাড়না অনুভব করার পর ঠকি-বঠেকি, উচতি-অনুচতি, সামাজকি-অসামাজকি ইত্যাদি গুরুত্বর্পূণ বষিয়গুলোর আলোকে বচিার বশ্লিষেণ করে যৌক্তকি সদ্ধিান্ত গ্রহণ কর।ে আমাদরে দশেরে বশেরিভাগ মানুষ তাড়নায় সাড়া দয়ে কোন্ র্পযায়ে তা বলার অপক্ষো রাখনো। বশেরি ভাগ মানুষ প্রথম র্পযায়ে এবং কছিু সংখ্যক দ্বতিীয় র্পযায়ে এবং তৃতীয় র্পযায়রে লোকরে সংখ্যা খুবই নগণ্য। কাজইে সদ্ধিান্ত গ্রহণরে ভুল কাজটওি তার কাছে স্বাভাবকি মনে হওয়ার কারণে দ্বান্দ্বকিতা, বশিৃঙ্খলা এবং অস্থরিতা বরং বড়েইে চলছ,ে কমছে না মোটওে।

চাহদিা যোগানরে সাম্যবস্থাকে ভারসাম্য বা সাধারাণ সন্তুষ্টি অবস্থান হসিবেে মনে করা হলওে প্রত্যাশা পূরণরে ক্ষত্রেে চাহদিার তুলানায় যোগান আনুপাতকি হারে একটু বশেী হলইে বরং সন্তুষ্টরি মাত্রা সুখকর হয় বলে আমার মনে হয়ছে।ে কন্তিু বাস্তব ক্ষত্রেে প্রায় হাজার সংখ্যক মানুষরে জন্য একজন পুলশি কাজ কর।ে সংগত কারণইে যোগানরে অপ্রতুলতা প্রত্যাশা পূরণে সন্তোষজনক ভূমকিা পালনে কতটুকু সম্ভব তা ভবেে দখোও দরকার।

আমরা ৯৫% মানুষ এখনও যমেন রাগ-অনুরাগ, মান-অভমিান,অভযিোগ-অনুযোগ ইত্যাদি অনুভূতরি বশ্লিষেণাত্মক র্পাথক্য করতে জাননিা, তমেনি পারনিা ইচ্ছা,আকাঙ্খা প্রয়োজন এবং চাহদিাকে প্রকৃত র্অথে বভিাজতি করত।ে আর এরই সাথে যদি কোন আইনী বষিয়কে সস্পৃক্ত করা হয় তখন স্বল্প শক্ষিতি মানুষতো দূররে কথা বুদ্ধসিম্পন্ন শক্ষিতি মানুষরে মাথাও বশেীর ভাগ ক্ষত্রেইে আর কাজ করনো। অবশ্য হওয়ারই কথা, কনেনা শক্ষিা ব্যবস্থার কোন স্তরইে আইন সর্ম্পকতি তমেন কোন শক্ষিা দওেয়া হয় না।

প্রচলতি র্অথে যা করা উচতি নয় তা করার নাম অপরাধ আর এই ধারণাটি জনসমাজে যতটা স্বীকৃত সদেকি থকেে অপরাধরে অপর চরত্রি যা আইনগতভাবে করা উচতি – তা না করাও অপরাধ এ ধারনাটি সত্যকিার র্অথে ক’জন বোঝে তা একটু ভবেে দখোর প্রয়োজনও আছে ।

পুলশি শৃঙ্খলা রর্ক্ষাথে যাদরে উপর আইন প্রয়োগ করে দুঃখজনক হলওে সত্যি বশেরিভাগ মানুষই আইন সর্ম্পকে অজ্ঞ বধিায় এই অজ্ঞতাও আইনরে বআেইনী ব্যবহারকে একধাপ এগয়িে দয়িছে।ে র্সাবজনীন মানবাধকিার সনদ যমেন কাউকে মারপটি করার অধকিার দয়েনি তমেনি পুলশি আইনওে মারপটিরে ব্যাপারটাকে ঢালাওভাবে কোন স্বীকৃতি দয়েনি বরং নরিুৎসাহতি করা হয়ছে।ে বরং ইংরজেি চঙখওঈঊ শব্দরে অক্ষর বশ্লিষেণে যে গুনবাচক শব্দ গুলো পাওয়া যায় তা আর কোন পশোয় আছে বলে আমার জানা নাই।

একটু সামাজকি ব্যবস্থাপনার দকিে তাকয়িে দখো যতেে পার।ে সমাজ বাস্তবে প্রচলতি এবং কছিুটা পরর্বিতনশীল পদ্ধতি ও কাঠামোর মধ্যে দয়িে সামনরে দকিে এগয়িে চল।ে পরর্বিতনকে সবাই স্বাগত জানায় সুন্দর আগামীর প্রত্যাশায়। কন্তিু একটু চোখ বন্ধ করে চন্তিা করলে দ্বমিত পোষণ করার কোন কারন নইে য,ে সামাজকি অব্যবস্থাপনাই ধীরে ধীরে জীবনবোধকে অস্থরিতা ও অনশ্চিয়তার দকিে ঠলেে দয়িছেে কনেনা অশক্ষিতি,অযোগ্য,অর্থব,র্ধনাঢ্য প্রভাব-প্রতি পত্তশিীল মধোশূন্য মানুষ অনকে র্কমকান্ডইে নতেৃত্ব দচ্ছিে যাদরে মন্দ বুদ্ধবিৃত্তরি ফসলই আজকরে পরনিত;ি অনয়িম, অশান্ত,ি অস্থরিতা, হাহাকার, এবং সাধারণ মানুষরে ভাগ্য পরর্বিতনরে রুদ্ধপথ।

ভাবতে সত্যইি অবাক লাগে শক্ষিা প্রতষ্ঠিানে গর্ভনংি বডি বা ম্যানজেংি কমটিরি সদস্যরা র্পযন্ত অনকেইে অশক্ষিত যারা শক্ষিাক্ষত্রেে অবাঞ্ছতি হবার কথা। তাদরেও প্রভাব সচতেনতাকে এমনভাবে ধ্বংস করছেে যে শক্ষিতি মানুষ ও তাদরেকে ভোটরে মাধ্যমে নর্বিাচতি করছে নর্দ্বিধিায়। সদ্ধিান্ত গ্রহণওে কছিু কছিু ক্ষত্রেে তথাকথতি সামাজ সবেকরে নতেৃত্বে কল্যাণকামী দকি নর্দিশেনা না দয়িে বরং র্অথরে ক্ষমতা অনুধাবন করে অবধৈ উপায়ে কবেলমাত্র র্অথোর্পাজনরে পছিনে দৌড়ে বড়োচ্ছ।

ফলশ্রুততিে মানুষ অতমিাত্রায় আত্মকন্দ্রেকি হয়ে বাণজ্যিকি ভত্তিতিে জ্যামতিকি হারে অবধৈভাবে র্অথোর্পাজনরে প্রতযিোগীতায় লপ্তি হচ্ছে দনিরে পর দনি। অন্ধমোহে লপ্তি এ মানুষগুলো অন্যরে র্সবনাশে নজিরে সাময়কি সুখে তৃপ্ত। কন্তিু উপলদ্ধরি তাত্ত্বকি তথা মধোভত্তিকি র্দশনে লক্ষ্য করলে চত্রিটি পরষ্কিার য,ে সে তার পরর্বতী প্রজন্মরে র্সবনাশ নজিরে হাতইে করে যাচ্ছ।ে কলমরে আঁচড়ে এমন র্দাশনকি চক্ষু উন্মোচনরে চষ্টো করলে র্ধূত এ মানুষগুলো সমাজরে মানুষরে কাছে নজিদেরেকে জাদুকরি হসিবেে উপস্থাপন করার অপচষ্টোয় লপ্তি থাকে আর মানুষ তাদরে কথা বশ্বিাসও করে কারণ টাকা থাকে ওদরে হাত।

( দুই)

সাগরসম সমস্যা সংকুল পড়ন্ত সমাজরে সৌরজাগতকি বচিত্রি চরত্রিরে মানুষ যনে আইনসদ্ধি পথে চন্তিা চতেনা ও কারবার পরচিালনা করে এমন জটলি বষিয়রে দায়ত্বি ন্যস্ত করা হয়ছেে পুলশিলে উপর। অপরাধ অনুসন্ধান, উদঘাটন, অপরাধীকে বচিারে সোর্পদ করা এবং অপরাধ নয়িন্ত্রণ করা পুলশিরে কাজ। উপযুক্ত র্কতৃপক্ষ র্কতৃক প্রদত্ত সকল প্রকার বধৈ আদশে দ্রুত পালন বা র্কাযকরী করা। উপযুক্ত র্কতৃপক্ষ র্কতৃক প্রদত্ত সকল প্রকার বধৈ পরোয়ানা জারী ও দ্রুত র্কাযকরী করা, র্সবসাধারণরে শান্তি রক্ষা সর্ম্পকতি সংবাদ সংগ্রহ ও যথাস্থানে সে রপর্িোট প্রদান করা। কোন অপরাধ সংঘটতি হতে দখেলে বা হওয়ার আশংকা থাকলে উক্ত অপরাধ প্রতরিোধ বা নবিারণ করা। র্সবসাধারণরে বরিক্তকির র্কায র্অথাৎ পাবলকি ন্যুইসন্সে নবিারণ করা, অপরাধরে বৃত্তান্ত অনুসন্ধান বা উদঘাটন করা,আইনসঙ্গতভাবে গ্রফেতারযোগ্য সকল ব্যক্তকিে গ্রফেতার করা ইত্যাদ।ি পুলশি আইনরে ২২ ধারা মতে , প্রত্যকে পুলশি র্কমর্কতা র্সবদা র্কাযরত (ঙহ উঁঃু) বলে ববিচেতি হবে র্অথাৎ ২৪ ঘন্টার সব সময়ই তার ডউিটি করার জন্য বরাদ্দ রাখা হয়ছে; অথচ-সাপ্তাহকি সরকারী ছুটরি কোন নর্দিষ্টি দনি নইে, সবার মত র্অজতি ছুটি র্পূণমাত্রায় ভোগ করা সম্ভব হয়না,ছলেমেয়েদেরে শক্ষিা ব্যবস্থার কোন স্থায়ী বন্দোবস্ত নইে। ঝুঁকি ভাতা সকল র্কমর্কতার ক্ষত্রেে প্রয়োজোয্য নয়। দক্ষতার প্রশ্নে বস্তুনষ্ঠি সংবাদ সংগ্রহে ব্যয়তি খরচ প্রাপ্যতা দযি়ে মটোনো সবক্ষত্রেে সম্ভব হয়না। বাসস্থানরে অপ্রতুলতার চয়েে সরকারি ভাড়া প্রায় ক্ষত্রেইে স্হানীয় বাড়ি ভাড়ার চয়েে বশেি অনুভূত হওয়ায় এবং অপক্ষোকৃত কম আধুনকি সুযোগ সুবধিা থাকায় তা ব্যবহার করা যাচ্ছে না। তদন্তকারী অফসিার গনরে আধুনকি বজ্ঞিানসম্মত সরঞ্জামাদরি অপ্রতুলতা। জনবলরে অপ্রতুলতা, হাজার লোকরে বপিরীতে এক জন পুলশিরে ব্যবস্থা রয়ছেে মাত্র। ঝুঁকপর্িূণ কাজে ব্যবহাররে জন্য গাড়ীর স্বল্পতা রয়ছে।ে দক্ষ পুলশি গড়ার ক্ষত্রেে প্রশক্ষিণরে জন্য মোট বাজটেরে যে পরমিান র্আথকি বরাদ্দ দওেয়া হয় তা উল্লখে করার মত না।

এতদ্বসত্বওে, মানবাধকিার লংঘন বষিয়টি র্বতমান প্রক্ষেতিে খুব বশেি আলোচ্য বষিয় যা সরকার র্কতৃক ক্ষমতাপ্রাপ্ত শক্তি দ্বারা কৃত হয়। এমন একটি স্বাধীন বষিয়কে মাথায় রখেে পুলশিকে আইনগতভাবে দনৈন্দনি কাজ হসিবেে যা করতে হয় তা হল,

১। ট্রাফকি ডউিটি করা। ঝুঁকপর্িূনও বট।ে

২। রোদ বৃষ্টি ঝড় উপক্ষো করে ঝুঁকপর্িূন নাইট প্যাট্রোল করা।

৩। ভভিআিইপ,ি ভআিইপি ডউিটি করা-যা খুব র্স্পশকাতর, রাত জগেে র্গাড ডউিটি করা প্রকৃতপক্ষে কষ্টকর কাজ।

৪। মানি এসর্কট অত্যন্ত ঝুঁকপর্িূণকাজ,

৫। বল প্রয়াগ করা; আইন সংগত ভাব,ে বশে কঠনি কাজ।

৬। গ্রফেতার করা; বুদ্ধবিৃত্তকি ও ঝুঁকপর্িূণ কাজ,

৭। আদালতে সোর্পদ করা; ২৪ ঘন্টার মধ্য।ে

৮। অস্ত্রবহন ও ব্যবহার করা, প্রশক্ষিণে এক থকেে দুই বার মাত্র গুলি করার সুযোগ রয়ছেে ।

৯। দহেতল্লাশী করা ;আইনসদ্ধি উপায়ে

১০। যানবাহন ও গৃহতল্লাশী করা। আইন সদ্ধি ভাব।ে

১১। নয়িমতি অফসির্কায সম্পাদন করা, যা সময় সাপক্ষে ব্যাপার ইত্যাদ।

এসব কছিুই একটা আইন সীমার মধ্যে থকেে করতে হয়। সীমালংঘতি হলইে বপিদ অনবর্িায। আর র্দুনাম সে তো কোন ব্যক্তি বশিষেরে নয় সমগ্র পুলশিরে উপর র্বতায় এবং একজনরে ভুলরে জন্য অন্যদরে পারবিারকি ও সামাজকি র্মযাদাও ক্ষুন্ন হয় যখোনে মুখ্য ভূমকিা পালন করতে দ্বধিাবোধ করে না পুলশিরে প্রতবিশেী এবং সমাজ। নাগরকি হসিবেে ইতহিাস ঐতহ্যি ও দশেপ্রমে ববিচেনা করে পুলশি রুটনি কাজরে বাইরওে কছিু কাজ করে থাকে যমেন সচতেনতা বৃদ্ধ,ি জনসংখ্যা, নারী নর্যিাতন, নারীর ক্ষমতায়ন, লঙ্গি বষৈম্য, প্রাথমকি চকিৎিসা, মানবাধকিার, শশিু অধকিার, শশিু ও নারী পাচার রোধ, কশিোর অপরাধ, ড্রাগ আসক্তি ইত্যাদি বষিয়ক বশিষোয়তি কাজ গুলো। এছাড়াও সামাজকি বনায়ন, সামাজকি সম্প্রীত,ি সামাজকি মূল্যবোধ, শক্ষিা, দশেীয় সংস্কৃতরি উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা এবং বন্যা নয়িন্ত্রনরে মত অসংখ্য কাজ। এর বাইরওে জাতীয় যে কোন র্দুয্যোগ মোকাবলোয় যমেনটা করোনা মোকাবলোয় পুলশি জীবনরে ঝুঁকি নয়িে নর্দ্বিধিায় এগয়িে চলছ।ে উপায় নইে করতইে হবে কারন ইতহিাস ঐতহ্যি ও দশেপ্রমেে পুলশিরে রয়ছেে গৌরবাজ্জ্বল ভূমকিা সইে সাথে পুলশিরে উপর গণমানুষরে প্রত্যাশাও অনকে বশে।ি আবার প্রাতষ্ঠিানকি মাধ্যম দ্বারা, অনানুষ্ঠাকি গ্রুপ ও সংস্থার মাধ্যম,ে সাহত্যি, সাইন্স ফকিশন, গল্প-উপন্যাস লখেনরি দ্বারা, জনসমাবশে থকেে এবং পত্রপত্রকিা, ইলকেট্রনকি মডিয়িা ও র্আন্তজাতকি প্রতক্রিয়িা থকেওে পুলশিরে নানাবধি নত্যি নতুন কাজ সম্পাদনে মনযোগি হতে হয়। তদুপরি র্বতমান সাংবধিানকি পদ্ধততিে রাজনীতবিদিরা হলো দশে ও জাতরি র্কণধার এবং তাদরে দওেয়া প্রতশ্রিুতি জনগনরে প্রত্যাশাকে আরও একধাপ বাড়য়িে দয়ে। আকাশছোঁয়া প্রত্যাশা পূরনে র্সবত্র র্সবাবস্থায় র্সবপ্রকার সমস্যায় নর্ভিীক ও নরিপক্ষেভাবে পুলশিকে কাজ করতে হয়। জঙ্গবিাদী, চহ্নিতি ও প্রকৃত সন্ত্রাসীদরে ত্রাসরে রাজত্ব থকেে সমাজকে মুক্ত করতে হবে মানুষরে এই প্রত্যাশা গুলো খুবই মৌলকি কোনভাবইে তা অমূলক নয়। কন্তিু পুলশিরে অসুবধিা, সীমাবদ্ধতা, বচিাররে ক্ষমতাহীনতা ইত্যাদি বষিয়গুলো সাধারণ মানুষরে ভাবনার কোন বষিয় বলে ববিচেতি হয়নি কখনও বরং চাওয়া মাত্র আইনসংগত কংিবা বহর্ভিূত পন্থায় কাজটি করতে হবে এটাই বদ্ধমুল ধারণা।

কন্তিু কউে কি এভাবে একটু ভবেে দখেে কখনো য,ে ভাল কাজ করতে গলেওে পুলশিরে বড়িম্বনার শষে নইে। ধরুণ-

এক. একজন হরেোইন আসক্তকে অপরাধস্থল থকেে ধরে আনা হল। ২৪ ঘন্টার মধ্য তাকে বচিারে সোর্পদ করতে হবে আর এরই মধ্যে তার নশো প্রত্যাহাররে লক্ষণ(ডরঃযফৎধধিষ ঝুসঢ়ঃড়স) দখো দলিে তাকে হরেোইন দবোর মত অবধৈ কাজ পুলশিরে করতে হবে কনেনা পুলশি হফোজতে সে মারা গলেে সাংবাদকি ও মানবাধকিার র্কমীরা পুলশিরে বরিুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠ।ে সক্ষেত্রেে পুলশিরে বপিদ অনবর্িায।

দুই. কোন অপরাধ সংঘটন হতে পারে জনেে পুলশি একটি বাড়ীর সামনে পায়তারা করতে লাগল। এ অবস্থায় বাড়ীর মালকি ভাবল পুলশি ঘোরাঘুরতিে তার সামাজকি র্মযাদা ক্ষুন্ন হচ্ছ।ে সে পুলশিকে চলে যতেে বাধ্য করল। কছিু সময় পরে যথারীতি একটি র্দূঘটনা ঘটল, বাড়ীর মালকি সাংবাদকিদরে জানাল পুলশিরে যোগসাযোশে দুষ্কৃতকিারীরা এ ঘটনা ঘটয়িছে।ে এতক্ষণে প্রচার হয়ে মানুষরে মধ্যে একটি ধারনার জন্ম নলি। পুলশি হল খলনায়ক সকলরে কাছ।ে অতপর ভূক্ত ভোগি ছাড়া কউে জাননো।

জটলি ও বচিত্রি মননরে প্রায় ২০ কোটি মানুষ, অসংখ্য সংস্থা ও প্রতষ্ঠিানরে প্রত্যাশা পুলশিরে কাছে অনকে বশেি এবং এতটাই আবগেঘন যনে, নদীর প্রবাহতি স্রোত দয়িে ধয়েে আসা সাগর জোয়াররে স্রোতরে গতকিে বপিরীত দকিে চালতি করে অর্নুবর মাটতিে পলি ফলেে র্উবর করার মত। তবে এত টুকু বলা যতেে পারে র্বতমান বাংলাদশে পুলশি এখন আগরে চয়েে অনকে বশেি মানবীক, গতশিীল ও র্দুবার এবং গণমানুষরে চাওয়া পুরনে বদ্ধপরকির। ২০ কোটি মানুষরে চাহদিা পূরনে পুলশি সদস্য র্সবদা প্রস্তুত। জীবনকে উৎর্সগ করে পুলশি মানবতার কল্যাণে জাতীর এই দুঃসময়ে ডাক্তারদরে সঙ্গে করোনা ভাইরাস মোকাবলোয় নরিলস যুদ্ধ করে যাচ্ছ।ে শুধু তাই নয় জীবনরে ঝুঁকি নয়িে করোনায় আক্রান্ত মৃত ব্যাক্তরি জানাজা এবং কবর খনন ও দাফনরে কাজ মানবকি কারণইে করতে হচ্ছ।ে আবার লাঠি হাতে রাস্তায় রোদে পুড়ে মানুষকে বুঝয়িে ঘরে ফরোনোর মত অপ্রয়ি কাজ ও করতে হচ্ছে পুলশিক।ে আবার মানবীক কারনে অসহায়দরে মাঝে রাতরে আঁধারে প্রয়োজনীয় খাবার পৌঁছে দতিে হচ্ছে কন্তিু পুলশিকইে। যদওি সে ছবি প্রচারে আসার বষিয়টা খুব একটা চোখে পড়নো।SM Jahangir SP Soby-2

পরশিষেে সমবতে অনকেরে মত একজন অনুজ সদস্য হসিবেে আমওি দৃঢ়চত্তিে আশাবাদী গণমানুষরে প্রত্যাশা পুরনে বাংলাদশে পুলশি প্রধান বজ্ঞিান মনস্ক ড. বনেজীর আহমদে বপিএিম (বার) স্যাররে গতশিীল নতেৃত্বে চলমান বশ্বৈকি মহামারি করোনা সংকট যথাযথভাবে মোকাবলিা ও প্রতরিোধ সহ সকল চ্যালঞ্জে পূরণ করে বাংলাদশে পুলশি গণমানুষরে সন্ধিুসম প্রত্যাশা ও আকাঙ্খার সফল বাস্তবায়ন করব।ে আধুনকিতার ছোঁয়ায় মুক্তযিুদ্ধরে মূল্যবোধ এবং আইন-শৃঙ্খলা সমুন্নত রাখার পাশাপাশি বাংলাদশে পুলশি মানবতার জয়গান গাইব।ে পুলশি জনগণরে আশর্বিাদ, এই সত্যকে র্অজনরে ক্ষত্রেে নাগরকি ভাবনায় পরর্বিতন এনে আরও খানকিটা মানবকি হওয়ার চষ্টো আমাদরে সকলকইে আব্যাহত রাখতে হবে যাতে করে পুলশি ভালো কাজে অনুপ্ররেণা লাভ কর।ে পুলশিরে বন্দিুসম প্রত্যাশা আমারা সবাই মলিে

উপহার দবোে সটেইি সত্য হোক ; হারয়িে না যাক সন্ধিুর বস্তিৃত সীমানার কোন অচনো অজানা অতল গহ্বর!ে

(লখেক – পুলশি সুপার, গীতকিব,কন্ঠশল্পিী ও প্রবন্ধকার)

Share.

Leave A Reply