রূপগঞ্জকে হারিয়ে জয় পেয়েছে প্রাইম ব্যাংক

0

এফএনএস স্পোর্টস: অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে দুর্ভাগ্য সঙ্গী হওয়ার পর কক্ষপথ থেকে ছিটকে গেছেন এনামুল হক। এরপর জাতীয় দলে ফিরলেও থিতু হতে পারেননি। ঘরোয়া ক্রিকেটেও এমন কিছু করতে পারেননি, যাতে করে নির্বাচকরা তার ওপর ভরসা রাখতে পারেন। সামনের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ যেহেতু টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে হচ্ছে, তাই এনামুলের জন্য সুযোগ ছিল দুর্দান্ত কিছু করে নির্বাচকদের নজরে পড়ার। কিন্তু প্রথম ৬ রাউন্ডে প্রত্যাশিত কিছু করতে পারেননি। অবশেষ শুক্রবার লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে অপরাজিত ৫৮ রানের ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছেন প্রাইম ব্যাংকের অধিনায়ক। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে রনি তালুকদার ও এনামুলের জোড়া হাফসেঞ্চুরিতে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৯ রান সংগ্রহ করে প্রাইম ব্যাংক। এনামুল ৪৬ বলে খেলা হার না মানা ৫৮ রানের ইনিংসটি সাজিয়েছেন ৫ ছক্কায়, সঙ্গে ছিল ২ বাউন্ডারির মার। তার দারুণ এই ইনিংসের পর ব্যাট হাতে নামা রূপগঞ্জ মাত্র ৬৮ রানে গুটিয়ে যায়। ফলে ১০১ রানের বড় ব্যবধানের জয় পেয়েছে প্রাইম ব্যাংক। রূপগঞ্জের তিন ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পেরেছেন। জাকির আলীর ব্যাট থেকে এসেছে ১৫ বলে সর্বোচ্চ ১৬ রান। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১২ রান আসে আজমির আহমেদের ব্যাট থেকে। মোহাম্মদ শহীদ ১৩ রানে অপরাজিত থাকেন। এদিকে পুরো টুর্নামেন্টে নিজের ছায়া হয়ে থাকা সাব্বির রহমান আজও ব্যর্থ। ২ বল খেলে শূন্য রানে আউট হয়েছেন তিনি। প্রাইম ব্যাংকের নাহিদুল ইসলাম ১৫ রানে ৩ উইকেট নিয়ে হয়েছেন ম্যাচসেরা। আগের ম্যাচে বাজে বোলিং করা রুবেল হোসেন ছন্দে ফিরেছেন, ১৭ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। এ ছাড়া নাঈম হাসান ১৩ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। এর আগে টস হেরে ব্যাট করা প্রাইম ব্যাংক শুরুতেই তামিম ইকবালকে (১২) হারায়। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে রনি তালুকদার ও এনামুল মিলে ৬৭ রানের জুটি গড়েন। ৩১ বলে ৫ চার ও ৩ ছক্কায় রনি ৫৩ রানে আউট হন। এনামুল ২ চার ও ৫ ছক্কায় অপরাজিত ৫৮ রানের ইনিংস খেলেছেন। সব মিলিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৬৯ রান সংগ্রহ করে প্রাইম ব্যাংক। মুক্তার আলী ২৮ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন। এ ছাড়া মোহাম্মদ শহীদ ও নাবিল সামাদ একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

Share.

Leave A Reply