যে ১৬ জনের মরদেহের সৎকার করেছে কোয়ান্টাম

0

স্টাফ রিপোর্টার : পাবনাতে করোনা ও করোনা উপসর্গে মৃত্যুবরনকারী ১৬ জনের মরদেহের সৎকার করেছে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন পাবনার স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীরা। এর মাঝে তিনজন হিন্দু, একজন খ্রিষ্টান ও দশজন মুসলামান। কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন থেকে যাদের মরদেহ সৎকার বা শেষ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে তারা হলেন, পুলিশের এস আই মোশারফ হোসেন, ঘরবধূ সাহিদা বেগম, এলজিইডির প্রধান কার্যালয়ের একাউন্টস অফিসার ফিরোজ হোসেন, ঈশ^রদী উপজেলা জাসদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা বাচ্চু, সুজানগরের কাচারীপাড়ার আমিরুল, আটঘরিয়ার সঞ্জয়পুর গ্রামের শ্রাবন্তী আক্তার তামান্না,সদরের আরিফপুরের স্কুল শিক্ষক আশরাফ উদ্দিন মাষ্টার, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস এর অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী সুব্রত গোস্বামী, শালগাড়িয়া থানাপাড়ার ব্যাংক কর্মর্তা উৎপল কুমার সরকার, শহরের সেন্ট্রাল গার্লস স্কুলের অফিস সহকারী লিয়াকত আলী, শালগাড়িয়া গোলাপবাগ মহল্লার আলতাফ হোসেন, আরিফপুরের ব্যবসায়ী শেখ মোস্তাফিজুর রহমান ফিরু, কাচারীপাড়ার বাসিন্দা এলজিইডিতে কর্মরত সালাউদ্দিন, রাধানগরের নারায়নপুরের সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা বৈদ্যনাথ সাহা, জাসদ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক এনজিও কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ, শালগাড়িয়ার অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ওয়াহিদুল হক। কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবক দলের এমন মহতি উদ্যোগের কারনে স্থানীয় প্রশাসনের জন্য এটি হয়েছে একটু হলেও সহায়ক বলে বলছেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা। এদিকে ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা বলছেন, এমন সংকটময় পরিস্থিতিতে তারা যা করেছেন ও করে যাচ্ছেন তা মানবিকতার এক দৃষ্টান্ত।

Share.

Leave A Reply