মাহফুজের অবহেলাই তাকে বিচ্ছেদের কারন: ইভা

0

এফএনএস বিনোদন: এনটিএন বাংলার চেয়্যারমেন  ড. মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্কের পর ইতি টেনেছেন সংগীত শিল্পী ইভা রহমান। শুধু তাই নয়, নতুন করে ঘরও বেঁধেছেন তিনি। নামের শেষে রহমানে পরির্বতে এখন আরমান লিখেন তিনি। তার স্বামীর নাম সোহেল আরমান। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ইভার গুলশানের বাসায় দুই পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন গায়িকা। কিন্তু মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে কেন বিবাহবিচ্ছেদ হল, এই প্রশ্ন উঠে আসছিল বারবার। এবার এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন ইভা। মাহফুজের অবহেলাই তাকে বিচ্ছেদের পথে ঠেলেছে বলেও মন্তব্য করেন ইভা। সাম্প্রতি এক গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকালে তিনি এসব কথা বলেন। ইভা বলেন, ২০১২ থেকে আমরা সেপারেট থাকা শুরু করি। আমি আর আমার ছেলে থাকতাম গুলশানে আর উনি থাকতেন বনানীতে। এভাবে একটি সম্পর্ক ঝুলন্ত থাকতে পারে না। ৯ বছর চেষ্টা করেও সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে পারেননি বলেও জানান ইভা। এজন্য মাহফুজুর রহমানের অসহযোগিতাকে দায়ী করেছেন তিনি। চলতি বছরের ৪ জুন ডিভোর্স পেপার সাবমিট করেন ইভা। চলতি মাসের ১৬ সেপ্টেম্বর ডিভোর্স প্রক্রিয়া শেষ হয় তাদের। এরপর ১৯ সেপ্টেম্বর ফের বিয়ে করেন মাহফুজুর রহমানের সাবেক এই সহধর্মিণী। নতুন নাম ইভা আরমান নামে নিজেকে পরিচয় করান তিনি। মাহফুজুর রহমানকে বিয়ে করে শুধু শূন্যতা পেয়েছেন জানিয়ে ইভা বলেন, নতুন স্বামীর কাছে গানের ব্যাপারে অনেক অনুপ্রেরণা পাচ্ছি। আগামীতে আরো সাবলীল গান করার আশা প্রকাশ করে ইভা বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে অনেকে ট্রল করে আমাকে গানের পাখি বলেছেন। ট্রলের শিকার হওয়ায় হতাশাও প্রকাশ করেন এই সংগীত শিল্পী। এ সময় সমালোচকদের গঠনমূলক ট্রল করার আহ্বান জানান ইভা আরমান।

এটিএন বাংলায় সংবাদ পাঠক হিসেবে চাকরিজীবন শুরু করেছিলেন ইভা রহমান। তখনই এর চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। সেই সম্পর্ককে পূর্ণতা দিয়ে তারা বিয়ে করেন। কণ্ঠশিল্পী ইভার এ পর্যন্ত ৩০টি গানের অ্যালবাম প্রকাশিত হয়েছে। এর মধ্যে ‘মনের না বলা কথা’, ‘মন ভেসে যায়’, ‘মন জোনাকী’, ‘মনে পড়ে যায়’, ‘মনের যে কথা’, ‘মন আধার’, ‘মন থেকে দূরে নও’,’মন আমার’, ‘মন সাগরে ভাসি’ এবং ‘মনের তুলিতে আঁকি’ অ্যালবামের বাছাই করা কিছু গানের ভিডিও চিত্রায়ণ হয়েছে দেশে ও দেশের বাইরে।

01-Eva

Share.

Leave A Reply