বিশ্বকাপের তিক্ত অভিজ্ঞতা পেছনে ফেলে বর্তমানে নজর তাসকিনের

0

এফএনএস স্পোর্টস: বিশ্বকাপ মানেই তাসকিন আহমেদের জন্য আলাদা আলাদা স্মৃতির ঝাঁপি নিয়ে হাজির হওয়া কোনো অতীত। যেসব অতীতে জড়িয়ে আছে আক্ষেপের গল্প। তবে এবার আরও একটি বিশ্বকাপ সামনে রেখে দলে জায়গা পেয়ে জানালেন বর্তমানেই নজর দিতে চান। ২০১৪ সালে আন্তর্জাতি অভিষেক, পরের বছরই খেলেছেন ওয়ানডে বিশ্বকাপে। যে আসরে বাংলাদেশ প্রথমবার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে খেলার গৌরব অর্জন করে। বল হাতে তাসকিনও হয়েছেন সফল। ৬ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি এই ডানহাতি পেসার। তবে পরের বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মাঝপথেই পেলেন বড় ধাক্কা। টুর্নামেন্টের মাঝপথে আরাফাত সানি সহ পড়লেন অবৈধ বোলিং অ্যাকশন সন্দেহে নিষেধাজ্ঞায়। কয়েক মাসের মধ্যেই আবার ২২ গজে ফিরেছেন, তবে এরপর পড়েন চোটে। ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের আগে ফিট হলেও, ম্যাচ ফিটনেসের ঘাটতি থাকায় বাদ পড়তে হয় দল থেকে। মিরপুরে তার কান্নার ছবি এখনো হৃদয়ে দাগ কাটে ভক্তদের মনে। সেসব পেছনে ফেলে তাসকিন নতুন উদ্যমে জাতীয় দলে ফিরেছেন। এতটাই পোক্ত হয়েছেন যে সমান তালে খেলছেন তিন ফরম্যাটেই। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে আছে অটো চয়েজ হয়েই। গত ৯ সেপ্টেম্বর দল ঘোষণার পর বুধবার প্রথমবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছেন এই ডানহাতি পেসার। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সিরিজে মাত্র ১ ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলেও তাসকিন আশাবাদী বিশ্বকাপের আগে ওমানের ক্যাম্পে নিজেকে প্রস্তুত করে নিতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ আমি অনেক খুশি যে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছি এবার। আমি খুব এক্সাইটেড যে খেলতে পারবো ইন শা আল্লাহ, আল্লাহ যদি নেয়। যদিও কন্ডিশনের কারণে লাস্ট দুইটা টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে পারিনি কিন্তু শেষ একটা ম্যাচ খেলা হয়েছে।’ ‘প্রস্তুতি অনুযায়ী ওটিস গিবসন ও টিম ম্যানেজমেন্টের সাথে কাজ করা হচ্ছে। প্রস্তুতির জন্য ওখানে গিয়েও আমরা বেশ কিছু সময় পাবো। ইন শা আল্লাহ আমার বিশ্বাস আমরা ভালো কিছু করতে পারবো, করা সম্ভব আমাদের দলের।’ এদিকে বিশ্বকাপ নিয়ে নিজের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে তাসকিন জানালেন অতীত ভুলে বর্তমানে নজর দিতে চান, ‘সত্যি কথা বলতে দুইটা (২০১৬ ও ২০১৯) স্মৃতিরই আলাদা আলাদাৃযেগুলো অতীত, বর্তমানেই নজর দিতে চাই। আর সবাই দোয়া করবেন আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ রাখে আর ভালো করতে পারি।’

 

Share.

Leave A Reply