পাবনাকে সংযুক্ত করে ওয়াই প্যাটার্ন দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর দাবিতে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের ব্যানারে সর্বস্তরের মানুষের মানববন্ধন

0

স্টাফ রিপোর্টার : পাবনার নগরবাড়ি কাজিরহাটকে সংযুক্ত করে আরিচা মানিকগঞ্জ দৌলদিয়া রাজবাড়িকে একিভূত করে দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর নির্মাণের দাবিতে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর ব্যানারে পাবনা প্রেসক্লাবের সামনে গতকাল সকালে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম পাবনা জেলা শাখার সভাপতি আব্দুর রহিম পাকন, সাবেক সংসদ সদস্য মকবুল হোসেন সন্টু, ফোরামের সাধারন সম্পাদক মমিনুল ইসলাম বরুন, প্রধান শিক্ষিকা হাসিনা আখতার রোজি, নারী নেত্রী ও শিক্ষিকা হেলেনা পারভীন, মনসুর আলী কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুস সামাদ, ব্যবসায়ী ও সাংস্কৃতিক সংগঠক আব্দুর রাজ্জাক, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ খান, শিক্ষাবিদ ও গবেষক ড. মনসুর আলম, সাংবাদিক এস এম মাহবুব আলম, ইছামতি নদী রক্ষা আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, কলেজ শিক্ষক ও মানবাধিকার সংগঠক আশরাফ আলী, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম রফিক, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ফুরকান আলী, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আহমেদ শরিফ ডাবলু প্রমূখ বক্তব্য দেন। বক্তারা বলেন, এক সময়ে উত্তরাঞ্চলের প্রবেশ দ্বার বলে খ্যাত ছিলো নগরবাড়ি ঘাট। যমুনা সেতু চালু হবার পরে অর্থনৈতিকভাবে ঐতিহ্য হারায় ভেঙে পড়ে এখানকার সবকিছু। বক্তারা বলেন যমুনা সেতুর ওপরে ক্রমাগত চাপ কমাতে এবং উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিনবঙ্গের সাথে রাজধানীর স্বল্প সময়ে যাতায়াত নিশ্চিত করতে ও সড়ক দুর্ঘটনা রোধে পাবনাকে সংযুক্ত করে রেললাইনসহ দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণ এখন সময়ের দাবিতে পরিনত হয়েছে। এমনটা হলে তা আঞ্চলিক অর্থনীতিতে আনবে আরেক দফা গতি। তাই আগামীদিনের এমন কর্মপরিকল্পনায় পাবনাকে যেন সংযুক্ত করা হয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে এ আহবান জানান মানববন্ধনে অংশ নেওয়া বক্তারা। মানববন্ধনে মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, শিক্ষক শিক্ষিকা শিক্ষার্থীবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দসহ নানা শ্রেনীর বিপুল সংখ্যক মানুষ অংশ নেন।

Share.

Leave A Reply