নাটকের পোস্টার দিয়ে আবারো আলোচনায় অপূর্ব!

0

এফএনএস বিনোদন: মহামারিতে থমকে যাওয়া এই সময়েও থেমে নেই অপূর্ব। বৈচিত্র্যময় বেশভূষা আর জনপ্রিয়তার রেকর্ড গড়ে অপূর্ব সময় পার করছেন অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। এই অসময়ে তিনিই একমাত্র অভিনেতা, যার দখলে রয়েছে ২০টি কোটি ভিউয়ের মাইলফলক! ইউটিউবে এমন রেকর্ড দুই বাংলার আর কারও নেই। সঙ্গে সম্প্রতি তিনি আলোচনায় এলেন ফেসবুকে প্রকাশ হওয়া একটি নাটকের পোস্টার দিয়ে। নেটিজেনরা অবাক হয়েছেন অপূর্বর হাতের মাইক্রোফোন আর পরনে ঢিলেঢালা পোশাক দেখে। গোঁফসহ অপূর্বকে এভাবে একেবারেই দেখা যায়নি। এ অভিনেতার এমন বেশভূষার কারণ- এবার তিনি অনলাইন পোর্টালের সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। যিনি সেই পোর্টালের একজন মফস্বল প্রতিনিধি। নাটকের নাম ‘ব্রেকিং নিউজ’। যা রচনা করেছেন রাজীব আহমেদ এবং পরিচালনায় আছেন রুবেল হাসান। ‘ব্রেকিং নিউজ’ নাটকের নাট্যকার রাজীব আহমেদ বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি দীর্ঘদিন ধরে প্রিন্ট ও টেলিভিশন সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত। অভিজ্ঞতায় দেখেছি, দেশের মানুষের মধ্যে ধারণা আছে যে সাংবাদিক মানেই টাকা দিয়ে কেনা যায়, পোষা যায়। জীবনের প্রয়োজনে হয়তো অনেক সময় কম্প্রোমাইজ কাউকে কাউকে করতে হয়, কিন্তু সত্যিকার অর্থেই রাষ্ট্রীয় বা জাতীয় সংকট যখন সামনে আসে, তখন কিন্তু ঠিকই সাংবাদিক তার নীতি আদর্শ নিয়ে দাঁড়িয়ে যায়। সে সময় কোনও সাংবাদিক মৃত্যুর ভয়ও করে না, জীবনের পরোয়াও করে না। প্রমাণ হয়, সাংবাদিকতা একটি মহৎ পেশা। যারা সাংবাদিকদের নিয়ে ট্রল করেন, তারা সঠিক তথ্যটাও কিন্তু পাচ্ছেন সাংবাদিকদের কাছ থেকেই।’ ঠিক এমনই একটি চরিত্র নিয়ে এই ঈদে হাজির হচ্ছেন টিভি নাটকের রোমান্টিক হিরো অপূর্ব। জানা যায়, ঈদের দিন একটি বেসরকারি টেলিভিশনে প্রচারের পর ‘ব্রেকিং নিউজ’ দেখানো হবে ঈগল মিউজিকের ইউটিউব চ্যানেলে। নাটকটিতে অপূর্ব ছাড়াও অভিনয় করেছেন সাবিলা নূর, কায়েস চৌধুরী, হিন্দোল রায় প্রমুখ। এদিকে রেকর্ড বা জনপ্রিয়তার বিচারে ইউটিউবে অপূর্বর অবস্থান এক নম্বরে। বাংলাদেশের প্রথম অভিনেতা যার নাটক ‘বড় ছেলে’ ইউটিউব ভিউয়ের দিক থেকে প্রথম দ্রুততম সময়ে কোটি ভিউয়ের মাইলফলক ছুঁয়েছিল। এছাড়া অপূর্ব অভিনীত কোটি ভিউয়ের ২০টি নাটকের তালিকায় রয়েছে ‘অবুঝ দিনের গল্প’, ‘ব্যাচ ২৭- দ্যা লাস্ট পেজ’, ‘ভালো থেকো তুমিও’, ‘বিনি সুতোর টান’, ‘এক্সচেঞ্জ’, ‘যদি তুমি জানতে’, ‘দ্য পারফেক্ট ম্যান’, ‘ভালোবাসি তুমি আমি’, ‘মিস্টার অ্যান্ড মিস চাপাবাজ’, ‘গোলাপি কামিজ’, ‘হঠাৎ দেখা’, ‘ফার্স্ট লাভ’, ‘প্রেমছবি’, ‘ক্যান্ডি ক্রাশ’, ‘শেষ পর্যন্ত’, ‘জীবন’, ‘শুধু তুমি’, ‘পার্টনার’ ও ‘তোমার অপেক্ষায়’। জিয়াউল ফারুক অপূর্বকে এখন চিহ্নিত করা যায় টিভি ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে সফল ও প্রভাবশালী অভিনেতা হিসেবে। এবং সেটি পজিটিভ অর্থেই। তার অর্জন ও জনপ্রিয়তার ধারাবাহিকতা সেটাই প্রমাণ করে। যদিও অপূর্ব মনে করেন, তিনি কিছুই নন, তার যা কিছু অর্জন, সবটুকুই দর্শকদের উপহার মাত্র। কথা প্রসঙ্গেবলেন, ‘আমি শুধু দর্শকদের মন রক্ষা করে সময়ের সঙ্গে তাল মেলানোর চেষ্টা করি। টিভি, ইউটিউব, অ্যাপ- জানি না সামনে আরও কত মাধ্যম আসছে। প্রতিটি মাধ্যমেই আমি চেষ্টা করি দর্শকদের সঙ্গে থাকতে। কারণ, দর্শক ও সময়- এই দুটোর বাইরে আমরা কেউ, কিছু নই।’ এখন দ্রুততম কোটি ভিউয়ের তালিকাটি শাসন করছেন এই অভিনেতা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এটা ভালো লাগার বিষয়। অহংকারের নয়। কোটি ভিউয়ের তালিকায় ২০টি নাটক! মানে দর্শকরা আমাকে প্রচুর ভালোবাসা দিয়েছেন। একজন শিল্পীর কাছে এর চেয়ে বড় স্বীকৃতি আর কিছু হতে পারে না। আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি সকল নির্মাতা, প্রযোজক, সহকর্মী ও দর্শকদের প্রতি। সবার সম্মিলিত প্রয়াসেই এটা সম্ভব হচ্ছে।’ এদিকে করোনা সংক্রমণ বাড়ার কারণে গেলো দুই মাস ধরে শুটিং থেকে দূরে আছেন অপূর্ব। গত লকডাউন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি ছিলেন হাসপাতালেও। শুটিং থেকে বিরত থাকা প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘আমি জানি এই ঈদের সময় শুটিংয়ে যেতে না পারা মানে ইন্ডাস্ট্রির অনেক ক্ষতি হয়ে যাওয়া। কিন্তু এটাও তো ঠিক, জীবনের মূল্য সবচেয়ে বেশি। সেটা আমার ইউনিটের ছাতা ধরা ছেলেটির জীবনও মূল্যবান। এসব বিষয় ভেবে ঘরে বসে আছি। শুটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারছি না। তাছাড়া গত বছর তো খুব বাজে পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছিলাম। বেঁচে যে আছি, সেই তো সৌভাগ্য। ফলে এবার আমার জন্য বিষয়টি সত্যিই রিস্কি। তবু অপেক্ষায় আছি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার।’

 

 

Share.

Leave A Reply