দুই বোনকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টায় মামলা সাবেক ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার চাটমোহরে

0

স্টাফ রিপোর্টার :  চাটমোহর উপজেলার বাঘলবাড়ি গ্রামে দুই বোনকে শ্লীলতাহানীর চেষ্টার অভিযোগে আব্দুস সালাম (৫০) নামে সাবেক এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সালাস উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের বাঘলবাড়ি গ্রামের আব্দুল বেপারীর ছেলে। সে হান্ডিয়াল ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য।একই গ্রামের আবু হানিফের স্ত্রী সবিতা খাতুন জয়নব বুধবার (১৯ মে) রাতে চাটমোহর থানায় বাঘলবাড়ি গ্রামের ঈমান আলী সরদারের ছেলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতা ডা. আব্দুস সামাদ সরদার (৫৫) ও আব্দুস  সালামকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ আব্দুস সালামকে গ্রেপ্তারকরে। অপর আসামী সামাদ সরদার পলাতক রয়েছে। অভিযোগে জানা যায়,আব্দুস সালাম ও আব্দুস সামাদ বাঘলবাড়ি গ্রামের মৃত আবু তালেবের ২ মেয়ে হালিমা খাতুন (৩৫) ও সবিতা খাতুন জয়নবকে (৩২) দীর্ঘদিন ধরে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। গত ১৫ মে রাত আনুমানিক ১০টার দিকে দুইজন জয়নবের বাড়িতে গিয়ে ঘরের দরজা খুলতে বলেন। জয়নব বিষয়টি তার ভাই রবিউলকে মোবাইল ফোনে জানালে রবিউল দরজা খুলতে বলেন। দরজা খোলার পর সালাম ও সামাদ দুই বোনকে মুখ চেপে ধরে শ্লীলতাহানীর অপচেষ্টা চালায়। ওই মেয়েদের ভাই রবিউল স্থানীয় লোকজন নিয়ে এসে সামাদ ও সালামকে আটক করেন। বিষয়টি এলাকার প্রধানরা মীমাংসার কথা বলে দুইজনকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। কিন্তু স্থানীয়ভাবে বিচার না পেয়ে গত ১৭ মে জয়নব সহকারী পুলিশ সুপার (চাটমোহর সার্কেল) সজীব শাহরীনের দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এরপর বুধবার (১৯ মে) রাতে শ্লীলতাহানীর চেষ্টার অভিযোগে চাটমোহর থানায় মামলা দায়ের করে। চাটমোহর থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলা দায়ের হওয়ার পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেফতার করেছে। অপর আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। গ্রেপ্তারকৃত আব্দুস সালামকে আদালতের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Share.

Leave A Reply