তৃতীয় জয় পেলো চেন্নাই সুপার কিংস

0

এফএনএস স্পোর্টস: এবারের আইপিএলে ঠিক ছন্দে নেই চেন্নাই সুপার কিংস। প্রতিপক্ষদের শাসন করে প্রত্যেক আসরে যে দলটি শিরোপা জয়ের পথে থাকে ‘হট’ ফেবারিট, সেই তারাই হাঁটছে খুঁড়িয়ে। টানা দুই ম্যাচ হারের পর আবারও মহেন্দ্র সিং ধোনিরা ফিরেছে জয়ের পথে। রবীন্দ্র জাদেজার অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ২০ রানে হারিয়েছে তারা। এবারের প্রতিযোগিতায় ৮ ম্যাচে এটি তাদের মাত্র তৃতীয় জয়। মঙ্গলবার রাতে দুবাইয়ের ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা চেন্নাই নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে করে ১৬৭ রান। কেন উইলিয়ামসনের চমৎকার হাফসেঞ্চুরিতেও হার এড়াতে পারেনি হায়দরাবাদ। ৮ উইকেট হারিয়ে ডেভিড ওয়ার্নারদের ইনিংস শেষ হয় ১৪৭ রানে। চেন্নাইয়ের জয়ের নায়ক জাদেজা। ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা এই অলরাউন্ডার ব্যাট হাতে শেষ দিকে নেমে ১০ বলে খেলেন হার না মানা ২৫ রানের ইনিংস, এরপর বল হাতে ৩ ওভারে ২১ রান খরচায় নেন জনি বেয়ারস্টোর গুরুত্বপূর্ণ উইকেটটি। ১৬৮ রানের লক্ষ্যে হায়দরাবাদের শুরু মোটেও ভালো ছিল না। মাত্র ২৭ রান তুলতে হারায় ২ উইকেট। ওয়ার্নার ৯ রানে এবং মনিশ পান্ডে ফেরেন ৪ রানে। মন্থর শুরুর পর বেয়ারস্টো যখন আশা জাগাচ্ছিলেন, ঠিক তখনই জাদেজার ঘূর্ণিতে ইংলিশ অলরাউন্ডার ফেরেন ২৪ বলে ২৩ রান করে। টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় একা হাতে লড়ে গেছেন উইলিয়ামসন। কিউই অধিনায়কের ৩৯ বলে খেলা ৫৭ রানের ইনিংসের কারণেই হারের ব্যবধান কমেছে হায়দরাবাদের। ডানহাতি ব্যাটসম্যান তার ইনিংসটি সাজান ৭ রাউন্ডারিতে। এ ছাড়া প্রিয়াম গর্গ ১৬, বিজয় শঙ্কর ১২ ও রশিদ খানের ব্যাট থেকে আসে ১৪ রান। চেন্নাইয়ের সবচেয়ে সফল বোলার ডোয়াইন ব্রাভো। ক্যারিবিয়ান তারকা ৩ ওভারে ২৫ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। তার মতো ২ উইকেট নিয়েছেন কর্ণ শর্মা। এর আগে ব্যাটিংয়ে নামা চেন্নাইয়ের ওপেনিংয়ে আসে আরেক দফা পরিবর্তন। ফাফ ডু প্লেসির সঙ্গে এবার ইনিংস শুরু করেন স্যাম কারেন। তবে এই জুটিতেও কাজ হয়নি। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যান মুখোমুখি প্রথম বলেই ফেরেন প্যাভিলিয়নে। যদিও নতুন পজিশনে আলো ছড়িয়েছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার। ২১ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় কারেন খেলেন ৩১ রানের ঝলমলে ইনিংস। কারেনের বিদায়ের পর চেন্নাইকে বড় স্কোরের ভিত গড়ে দেন ওয়ান ডাউনে নামা শেন ওয়াটসন ও চার নম্বরে নামা আম্বাতি রাইডু। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন গুরুত্বপূর্ণ ৮১ রান। হায়দরাবাদের বোলারদের সামলে ওয়াটসন ৩৮ বলে করেন ৪২ রান। ইনিংসটিতে ছিল ১ চার ও দুই ছক্কার মার। সমানতালে লড়ে রাইডু ৩৪ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় খেলেন ৪১ রানের কার্যকরী ইনিংস। অধিনায়ক ধোনির শুরুটা নড়বড়ে হলেও ১৩ বলে ২ চার ও ১ ছক্কায় খেলে যান ২১ রানের ঝড়ো ইনিংস। তবে ব্যর্থ হয়েছেন ডোয়াইন ব্রাভো। ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার প্রথম বলেই ফেরেন প্যাভিলিয়নে। চেন্নাইয়ের ইনিংস ১৬৭ রানে শেষ হওয়ার পথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন জাদেজা। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান শেষদিকে নেমে মাত্র ১০ বলে অপরাজিত থাকেন ২৫ রানে। ঝড়ো ইনিংসটি তিনি সাজান ৩ চার ও ১ ছক্কায়। তার সঙ্গে ২ রানে অপরাজিত ছিলেন দীপক চাহার। হায়দরাবাদের সবচেয়ে সফল বোলার সন্দীপ শর্মা। এই পেসার ৪ ওভারে মাত্র ১৯ রান খরচায় পেয়েছেন ২ উইকেট। তার মতো ২টি করে উইকেট নিয়েছেন খলিল আহমেদ ও টি নাতারাজন।

Share.

Leave A Reply