গ্যাস সিলিন্ডার পেট্টোল ও ডিজেল যত্রতত্র বিক্রি করা হচ্ছে চাটমোহরে

0

শামীম হাসান মিলন : চাটমোহর উপজেলার যত্রতত্র খোলামেলাভাবে বিক্রি হচ্ছে এলপিজি (গ্যাস সিলিন্ডার) ও পেট্টোল-ডিজেল। ফলে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা। এর প্রতিকারের জন্য দোকানে নেই কোন আগুন নেভানোর ব্যবস্থা। এ নিয়ে নানা অজুহাত ব্যবসায়ী ও দোকানীদের। উপজেলা সদরসহ ইউনিয়ন পর্যায়ে রাস্তার পাশে, মোড়ে, হাট-বাজারসহ যেখানে সেখানে পেট্টোল, ডিজেল আর এলপিজি বিক্রি হওয়ায় দূর্ঘটনার আশংকা রয়েছে। ঝুঁকি নিয়ে যত্রতত্র ভাবে এসকল পেট্টোল, ডিজেল, এলপিজি গ্যাস করা হলেও প্রশাসনের নজরদারি নেই। সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, চাটমোহর পৌর শহরসহ উপজেলার হাট-বাজার, রাস্তার মোড়ে মোড়ে সড়কের পাশে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে এলপি গ্যাস, পেট্টোল ও ডিজেল। রাস্তার পাশে বোতল ভর্তি পেট্রোল সাজিয়ে রাখ হয়েছে বিক্রি জন্য। এলপিজি গ্যাসের দামও নেওয়া হচ্ছে বেশি। গ্যাস ও তেল বিক্রির জন্য নেই কোন অগ্নিনির্বাপক বা বিস্ফোরক লাইসেন্স। দোকানী ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, তাদের প্রতিষ্ঠানের ট্রেড লাইসেন্স রয়েছে। দেখা গেছে, ট্রেড লাইসেন্স করা হয়েছে মুদি দোকান, চায়ের দোকান বা ইলেট্রিক্যাল সামগ্রী বিক্রির জন্য। সেই লাইসেন্সেই এলপি গ্যাস, পেট্টোল ও ডিজেল বিক্রি করছেন এসকল ব্যবসায়ীরা। নেই কারো অগ্নিনির্বাপক বা বিস্ফোরক লাইসেন্স। উপজেলার মুদি দোকান থেকে শুরু করে পানের দোকান, ফোনে টাকা রিচার্জের দোকান, প্লাস্টিক সামগ্রীর দোকান, ফলের দোকান, বিভিন্ন শো-রুম, ওষুধের দোকান, হার্ডওয়ারের দোকান, কীটনাশকের দোকান, বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির দোকানের সামনে রাখা হয়েছে এলপি গ্যাস, ডিজেল ও পেট্টোল। এ ধরণের ব্যবসার ফলে সরকার যেমন রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তেমনি দূর্ঘটনার আশংকাও রয়েছে। এ বিষয়ে গতকাল মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা হয়েছে। সভায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) শারমিন ইসলাম বলেন, বিস্ফোরক লাইসেন্স নিয়ে ব্যবসা করতে হবে। তাছাড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈকত ইসলাম বলেছেন, যেখানে সেখানে পেট্টোল, ডিজেল আর এলপিজি বিক্রি করায় দূর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ছোট ছোট দোকান বন্ধ করতে তিনি বিট পুলিশ, ইউপি চেয়ারম্যান ও আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তার সমন্বয়ে কমিটি গঠণ করেন। তাছাড়া ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানান তিনি।

Share.

Leave A Reply