করোনাভাইরাস: যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত রোগী ছাড়াল ৮০ লাখ

0

এফএনএস বিদেশ : মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া নতুন করোনাভাইরাসে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৮০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে শেষ ১০ লাখ শনাক্ত হয়েছে এক মাসেরও কম সময়ে, জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের টালি অনুযায়ী, মহামারী শুরুর পর থেকে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টা পর্যন্ত কোভিড-১৯ দেশটির ২ লাখ ১৭ হাজারেরও বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে বুধবার প্রায় ৬০ হাজার নতুন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ সংখ্যা ১৪ অগাস্টের পর সর্বোচ্চ। দেশটির প্রায় সব অঞ্চলে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে। শীতের সময়ে লোকজন যখন ঘরে থাকবে তখন সংক্রমণ আরও বাড়বে বলে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন। মধ্য পশ্চিমাঞ্চলীয় ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সব রাজ্যেই গত চার সপ্তাহে যত রোগী শনাক্ত হয়েছে, তা আগের ৪ সপ্তাহে শনাক্ত রোগীর চেয়ে বেশি। উইসকনসিন, সাউথ ডাকোটা এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারে একমাসে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা তার আগের মাসের তুলনায় দ্বিগুণ হয়েছে। মধ্য পশ্চিমাঞ্চলের রাজ্যগুলোতে বুধবার রেকর্ড ২২ হাজার রোগী শনাক্ত হয়েছে। সাউথ ডাকোটায় প্রতি ১০০ জনের শনাক্তকরণ পরীক্ষায় ৩০ জনের শরীরেই ভাইরাসের উপস্থিতি মিলছে; আইডাহো ও উইসকনসিনে এ হার ২০ শতাংশ। “আমাদের দৈনিক শনাক্ত রোগী অনেক; এই সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে,” বলেছেন উইসকনসিনের কর্মকর্তা আন্দ্রিয়া পাম। সংক্রমণের এই ঊর্ধ্বগতির পাশাপাশি বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের হাসপাতালগুলোও উপচে পড়া রোগীর ভার সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যগুলোর মধ্যে ক্যালিফোর্নিয়াতেই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে; এর পরে আছে টেক্সাস, ফ্লোরিডা, নিউ ইয়র্ক ও জর্জিয়া। যুক্তরাষ্ট্রের মোট শনাক্ত রোগীর ৪০ শতাংশই এই ৫ রাজ্যের, বলছে রয়টার্স। সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি রোধে এরইমধ্যে নিউ ইয়র্ক শহরের হটস্পটগুলোর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো ও স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অর্থোডক্স ইহুদিদের ছোট একটি দল এই বিধিনিষেধ আরোপের প্রতিবাদ জানিয়েছে। কোভিড-১৯ রোগী সামলাতে উইসকনসিন রাজ্য মিলওয়াউকি শহরের বাইরে একটি ফিল্ড হাসপাতালও খুলেছে।

Share.

Leave A Reply