ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে রাজি সুদান: ট্রাম্প

0

এফএনএস বিদেশ : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প শুক্রবার বলেছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে রাজি হয়েছে সুদান। মার্কিন নির্বাচনের দুই সপ্তাহের কম সময়ের আগে এমন ঘোষণা দিলেন ট্রাম্প। এর আগে গত সেপ্টেম্বর মাসে ইসরায়েলের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্ক স্থাপন করে বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। সেক্ষেত্রে সুদানও যদি তাদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে, তাহলে দুই মাসের মধ্যে তৃতীয় কোনও মুসলিম দেশ ইসরায়েলের সম্পর্ক স্থাপন করবে। এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বিশ্ব শান্তির জন্য আজ বড় জয়। ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তি ও সম্পর্ক স্বাভাবিকের চুক্তিতে সম্মত হয়েছে সুদান! সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের সঙ্গে যোগ দিলো তৃতীয় আরব দেশ, অন্যান্যের যোগ দেয়াও সময়ের ব্যাপার। আরও অনেকেই তাদের অনুসরণ করবে! এর আগে হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জুড ডিরি টুইট বার্তায় জানান, সুদান ও ইসরায়েল সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে রাজি হয়েছে বলে ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আব্রাহম অ্যাকার্ডে আরও একটি দেশ যোগ দেয়ায় মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে এটি আরও একটি বড় পদক্ষেপ। এই ঘোষণার কিছুক্ষণ আগে হোয়াইট হাউজ জানায়, সন্ত্রাসীদের মদদদাতা দেশের তালিকা থেকে সুদানের নাম বাদ দেয়ার নিজের ইচ্ছার কথা কংগ্রেসকে জানিয়েছেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, সুদানের সার্বভৌমত্ব পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দেল ফাত্তাহ আল-বুরহান এবং প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লা হামদক ও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এক ফোনালাপে গণতন্ত্র ও শান্তির জন্য এই ঐতিহাসিক অগ্রগতি অর্জন করেছেন।

তারা জানায়, এই ঐতিহাসিক চুক্তি চার নেতার সাহসী ও দূরদর্শী মনোভাবের প্রমাণ। তবে এই সম্পর্ক স্বাভাবিকের প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে উভয় দেশের মধ্যে পুরো মাত্রায় কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপিত হবে কিনা তা এখনও অস্পষ্ট।

Share.

Leave A Reply