ইভ্যালির সঙ্গে সম্পর্ক নেই তাহসানের

0

এফএনএস বিনোদন: আলোচিত-সমালোচিত ই-কমার্স সাইট ইভ্যালির সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক নেই গায়ক-অভিনেতা তাহসান খানের। গত মার্চের ১০ তারিখে ‘ফেস অব ইভ্যালি’ (শুভেচ্ছাদূত) হিসেবে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে তার দুই বছরের চুক্তি হয়েছিল। সংবাদমাধ্যমের অনুসন্ধানে জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির পণ্য ডেলিভারি নিয়ে নানা ধরনের বিতর্কের কারণে মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইভ্যালির সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেন এই তারকা। মে মাসের ১৫ তারিখে একটি ফেসবুক লাইভে তাহসান ও মডেল-সাবেক স্ত্রী মিথিলা একসঙ্গে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেটাই ছিল প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে এই গায়কের শেষ কাজ। চুক্তির সময় পারিশ্রমিকের কিছু টাকা পেয়েছিলেন, এর বাইরে তিনি কিছু পাননি। বিষয়টি নিয়ে তাহসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, চুক্তি বাতিলের নন-ডিসক্লোজার শর্ত অনুযায়ী এটি নিয়ে আপাতত কিছু বলবেন না। তবে ইভ্যালিতে তিনি আর নেই- এটা নিশ্চিত করেন। জানা যায়, ইভ্যালি তাহসানকে শুভেচ্ছাদূত করতে ২০২০ সালে প্রথম প্রস্তাব দিয়েছিল। কিন্তু তখন সাড়া দেননি তিনি। কিন্তু ২০২১ সালে তাহসানকে একই প্রস্তাব দেওয়া হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত ব্যক্তিত্ব আরিফ আর হোসাইনকে দিয়ে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে তাহসান প্রস্তাবটি পান। ততদিনে আরিফ আর হোসাইন ইভ্যালির প্রধান বিপণন কর্মকর্তা (সিএমও) হিসেবে যুক্ত হন। আরেকটি সূত্রজানায়, আরিফের সঙ্গে তাহসানের সম্পর্ক আগে থেকে বেশ ভালো ছিল। এই গায়ক ২০২০ সালে করোনা চলাকালীন ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আয়োজিত একটি নিলামে অংশ নিয়েছিলেন। ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ নামের পেজে তারকাদের পণ্য নিলামে তোলা হতো। প্রাপ্ত অর্থ তুলে দেওয়া হতো ক্ষতিগ্রস্তদের হাতে। সেখান থেকেই আরিফের সঙ্গে সুসম্পর্ক হয় তাহসানের। আর এ কারণেই তার প্রস্তাবটি আর ফেলতে পারেননি। মজার বিষয়, আরিফ আর হোসেন নিজেই ঘোষণা দিয়ে ইভ্যালি ছেড়েছেন কিছু দিন আগে। এছাড়াও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের টাইটেল স্পন্সর ইভ্যালি হওয়াতে তাহসান আরও আশ্বস্ত হয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির ওপর। এ কারণে প্রতিষ্ঠানটিতে নাম লেখান তিনি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইভ্যালির সাবেক এক কর্মী জানান, ‘ফেস অব ইভ্যালি’ হওয়ার খবর পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ার পরই পরিচিত ও অপরিচিতজনরা তাহসানকে ইভ্যালির ডেলিভারির ইনভয়েস পাঠাতে থাকেন। এবং বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হেনস্তার শিকার হতে থাকেন এই গায়ক। যার ফলে মে মাসে তিনি তার চুক্তি বাতিলের জন্য প্রতিষ্ঠানটির প্রধান মোহাম্মদ রাসেলকে জানান। রাসেল বিষয়টি মেনে নিলেও কোম্পানির ক্ষতি হবে- এমন কোনও তথ্য না প্রকাশের সমঝোতায় পূর্বের চুক্তিটি বাতিল করেন। বিষয়টি নিয়ে তাহসান বলেন, ‘ইভ্যালির বিষয়ে আপাতত আমি কিছু বলবো না। এগুলো আস্তে আস্তে সামনে আসবে।’ এদিকে জানা যায়, ইভ্যালির সঙ্গে চুক্তির কারণে তিনি চলতি বছর বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারেননি। তবে এসব বিষয়ে কথা বলতে নারাজ আলোচিত এই সংগীত-অভিনয়শিল্পী। উল্লেখ্য, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ রাসেল এবং তার স্ত্রী ও প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে ১৬ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এর আগে তাদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় অর্থ আত্মসাৎ ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে মামলা করেন আরিফ বাকের নামে একজন ভুক্তভোগী।

 

Share.

Leave A Reply