ইংল্যান্ড-ভারত সিরিজে থাকবে না কঠোর সুরক্ষা বলয়

0

এফএনএস স্পোর্টস: ইংল্যান্ডে আক্রান্তের হার বাড়ছে। দুই দলেও হানা দিয়েছে কোভিড। তবু ইংল্যান্ড-ভারত সিরিজে থাকছে না কঠোর জৈব-সুরক্ষা বলয়। ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন বলছেন, ক্রিকেটারদের মানসিক ধকলের কথা ভেবেই তাদের এই সিদ্ধান্ত। ইসিবির এই সিদ্ধান্ত এমন এক সময়ে এলো, ইংল্যান্ডে যখন ক্রিকেটে কোভিডের ছোবল বাড়ছে। ইংল্যান্ডে ছুটিতে থাকার সময় কোভিড আক্রান্ত হওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে প্রস্তুতি ক্যাম্পে যোগ দিতে পারেননি ভারতীয় দলের দুজন। আইসোলেশনে রাখা হয়েছে আরও কয়েকজনকে। কিছুদিন আগে লঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ শেষে ইংল্যান্ড দলের সাতজন কোভিড পজিটিভ হওয়ায় গোটা দলকে আইসোলেশনে রেখে তড়িঘড়ি করে নতুন দল গুছিয়ে তারা অংশ নেয় পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে। এছাড়া কাউন্টি ক্রিকেটও ব্যহত হচ্ছে কোভিডের আনাগোণায়। গত বুধবার ইংল্যান্ডে কোভিড শনাক্ত হয়েছে ৪২ হাজারের বেশি জনের। তবে ইসিবির প্রধান নির্বাহী হ্যারিসনের মতে, সময়ের সঙ্গে বদলে যাচ্ছে বাস্তবতা। ক্রিকেটারদের শারীরিক ঝুঁকির পাশাপাশি মানসিক অবস্থার কথাও ভাবতে হচ্ছে তাদের। “ কোভিডের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে এক বছর, এমনকি ছয় মাস আগের চেয়েও আমরা এখন ভিন্ন অবস্থানে আছি। আমরা এখন চেষ্টা করছি, এটিকে সঙ্গে নিয়েই কিভাবে টিকে থাকা যায় এবং জৈব-সুরক্ষা আবহ ছাড়া কিভাবে নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তোলা যায়।” “ দুটির ভেতর বড় পার্থক্য আছে। জৈব-নিরাপত্তা ও বলয়ে ক্রিকেটাররা বিরক্ত ও হতাশ হয়ে উঠছে। পরিবার থেকে দূরে থাকার সময়টা ক্রিকেটারদের মানসিক স্বাস্থ্যে প্রচ- বাজে প্রভাব ফেলছে। সামনে আমরা এই ধরনের পরিবেশ চালিয়ে যেতে পারব না।” হ্যারিসনের মতে, আরও অনেক দিন এই অবস্থা চলবে। তাই ভাবনাও সময়ের সঙ্গে বদলাতে হবে। “কোভিডের সঙ্গেই বেঁচে থাকা শিখতে হবে আমাদের। আরও অনেক দিন হয়তো এভাবেই চলতে হবে। কাজেই সর্বাত্মক প্রতিরোধের চেয়ে এখন ঝুঁকি কমিয়ে আনার দিকে মনোযোগ দিতে হবে। আমাদের ভাবনা হলো, অবশ্যম্ভাবী সংক্রমণের প্রভাব যতটা সম্ভব কমিয়ে আনার জন্য প্রটোকল তৈরি করতে হবে আমাদের।” সামনে ইংল্যান্ড-ভারত সিরিজে তাই কিছুটা শিথিল থাকবে সুরক্ষা-বলয়। হোটেলের পাশেপাশে সুনির্দিষ্ট কিছু জায়গায় যাওয়া, পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ দেওয়াসহ আরও কিছু সুবিধা এবার দেওয়া হবে। গ্যালারিতে দর্শক প্রবেশের অনুমতি তো আগেই দেওয়া হয়েছে। আগামী ৪ অগাস্ট থেকে শুরু হবে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ।

01-

Share.

Leave A Reply