আন্দোলনের নামে সহিংতা করলে কঠিন জবাব: কাদের

0

এনএনবি : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি আন্দোলনের নামে সহিংতার দিকে পা বাড়ালে কঠিনভাবে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভোগড়া বাইপাস মোড় এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে চলমান বিআরটি প্রকল্প ও সড়ক উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, “সামনে নির্বাচন। জনগণ এখন ইলেকশনের মুডে আছে; ভোটের মোডে আছে। বিএনপি নেতাদের সংশ্লিষ্ট যারা আজ ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করে দেশে একটি অস্থিতিশীল নাজুক পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে চান, তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। বাংলাদেশে ২০১৪ সাল, ২০০১ সাল আর ফিরে আসবে না। সেই খোয়াব দেখলে তা অচিরেই কর্পূরের মত উবে যাবে।

“তারা যদি আজ জাতীয় ঐক্যের নামে, আন্দোলনের নামে আবারও সহিংতার দিকে পা বাড়ায়, তাহলে কিন্তু দেশের জনগণকে নিয়ে আমরা কঠিনভাবে সমূচিত জবাব দেব। এ পরিস্থিতির মোকাবেলা করব। শেখ হাসিনার পরিচ্ছন্ন নেতৃত্ব জনগণ আস্থায় নিয়েছে। যে কারণে বিএনপির আন্দোলনে জনগণের পক্ষ থেকে কোনো সায় নেই।”

সংবিধান অনুযায়ী সরকার দেশ চালাবে জানিয়ে তিনি বলেন, “বিরোধী দলের কাজই হচ্ছে সমালোচনা করা। বিরোধী দল আছে। সমালোচনা হবে। নির্বাচন হবে সংবিধানের মধ্য দিয়ে। এ মুহূর্তে আন্দোলনের কোনো প্রয়োজনীয়তা নেই। দেশে একটা স্বস্তিদায়ক পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

“অক্টোবরের শেষ সপ্তাহ অথবা নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে যদি নির্বাচন কমিশন জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে তাহলে আমাদের হাতে দুই মাসের মত সময় আছে। এখন যারা হেরে যাওয়ার আশঙ্কায়, নির্বাচন থেকে সরে আসার নানা অজুহাত খুঁজে বেড়াচ্ছে তাদের ব্যাপার আলাদা। তারা মনে করেছে, ২০১৪ সালের মত দেশে একটা সহিংসতার বাতাবরণ তারা তৈরি করবে।”

মন্ত্রী ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে টঙ্গী থেকে জয়দেবপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত সড়ক উন্নয়নের কাজে জনদুর্ভোগ কমাতে যথাযথ পদক্ষেপ না নেওয়া ও দায়িত্বে অবহেলার কারণে বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) প্রকপ্লের প্রকল্প পরিচালক মো. সানাউল হক ও বঙ্গবন্ধু ব্রিজ অথরিটি (বিবিএ) প্রকল্প পরিচালক মো. লিয়াকত আলীকে কারণ দর্শাতে বলেছেন।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সানাউল হক, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী (ঢাকা জোন) মো. আব্দুস সবুর, সড়ক ও জনপথের ঢাকা বিভাগীয় প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুর সড়ক ও জনপথের নির্বাহী প্রকৌশলী নাহিন রেজা, গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ, গোলাম সবুরসহ সড়ক বিভাগের কর্মকর্তারা মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

Share.

Leave A Reply