হলিউড থেকে ঢাকায় ‘মাসুদ রানা’ টিম!

0

এফএনএস বিনোদন: গত বছরের নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত চলচ্চিত্র ‘মাসুদ রানা’র কেন্দ্রীয় চরিত্র খোঁজার প্রতিযোগিতা। সেই লক্ষ্যে চ্যানেল আই-এ প্রচার হচ্ছে ‘কে হবে মাসুদ রানা’ শিরোনামের একটি রিয়েলিটি শো। যদিও এ পর্যায়ে এসে খবর মিলছে নতুন কিছুর। জাজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আলিমউল্লাহ খোকন জানালেন, প্রতিযোগিতার বাইরে থেকেও ‘মাসুদ রানা’ চরিত্রটির জন্য যে কেউ চূড়ান্ত হতে পারেন! এমন কথার সত্যতা মেলে সম্প্রতি হয়ে যাওয়া একটি অডিশন বা সাক্ষাৎকারের সূত্র ধরে। জাজ জানায়, হলিউড থেকে আসা ছবিটির অপর প্রযোজক, পরিচালক ও ফাইটিং টিম এই সাক্ষাৎকার নিয়েছেন। গত ২৪ আগস্ট এই ঘরোয়া অডিশনটি হয়। সেখানে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ তারকা এবিএম সুমন ও ‘বেপরোয়া’ ছবির নায়ক রোশান অংশ নেন। পাশাপাশি চ্যানেল আই পরিচালিত ‘কে হবে মাসুদ রানা’ প্রতিযোগিতা থেকেও তিনজন প্রতিযোগী ছিলেন। প্রশ্ন আসাটাই স্বাভাবিক, তাহলে ঘটা করে ‘মাসুদ রানা’ খোঁজার নামে টিভি রিয়েলিটি শো করার অর্থ কী? এমন প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার পক্ষ থেকে আলিমউল্লাহ খোকনবলেন, ‘মাসুদ রানা যে কেউ হতে পারেন। ছবিটির প্রযোজক শুধু জাজ মাল্টিমিডিয়া নয়। এতে আন্তর্জাতিকভাবে আরও প্রযোজক যুক্ত হয়েছেন। সুতরাং কেউ প্রতিযোগিতা করলেই যে সেখান থেকে চরিত্র নির্বাচন হবে, এমন বাধ্যবাধকতা নেই। ফেসবুকে এমন অনেক প্রতিযোগিতাও হচ্ছে। ব্যক্তিগতভাবেই আমাদের সঙ্গে অনেকে সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন। মূলত আমরা চাই সাহিত্যের মাসুদ রানা চরিত্রটিকে শতভাগ পর্দায় তুলে ধরতে। সেটা যার মধ্যে পাওয়া যাবে তাকেই নেওয়া হবে। জাজের এই কর্মকর্তা আরও জানান, চ্যানেল আই আয়োজিত প্রতিযোগিতার কোনও চুক্তিনামা তার কাছে নেই!  তিনি বলেন, ‘জাজ মাল্টিমিডিয়ার চেয়ারম্যান আবদুল আজিজ। তার সঙ্গে কোনও চুক্তি হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। কিন্তু চ্যানেল আই এ বিষয়ে আমাদের অফিসে কোনও ডকুমেন্ট সাবমিট করেনি এখনও। এদিকে গত ২৪ আগস্ট ঢাকায় আয়োজিত বিশেষ ওই অডিশনে অংশ নেন ছবিটির পরিচালক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আসিফ আকবর ও হলিউডের অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টানসহ বেশ কয়েকজন। যেখানে অডিশন দেন সুমন, রোশানসহ আর তিন জন। মোট ৫ জন অডিশন দিলেও অ্যাকশন ডিরেক্টর ফিলিপ টান এবিএম সুমনের সঙ্গে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে ঢাকার পরিচিতি দিয়ে লেখেন, ‘আমরা এখানে এসেছি আমাদের পরবর্তী অ্যাকশন হিরো খুঁজতে। অ্যাকশন পরিচালকের এমন মন্তব্য তুলে ধরে জাজের সিইও আলিমুল্লাহ খোকনের কাছে জানতে চাওয়া হয়, তাহলে কি সুমনই হচ্ছেন মাসুদ রানা।তিনি বলেন, ‘এটা জাজের একার পক্ষে জানানো অসম্ভব। আমরা ছোট একটা টাকা লগ্নি করে প্রযোজনা করছি। অন্য প্রযোজকরা আছেন। তারাই এগুলো নির্বাচন করবেন। তবে এটা ঠিক, সুমন ও রোশানের সাক্ষাৎকার তারা নিয়েছেন। এ ছাড়া চ্যানেলে আইয়ের ৩ জনের সঙ্গেও কথা বলেছেন। সিদ্ধান্ত কিছুদিন পর তারা জানাবেন। এদিকে এ বিষয়ে এবিএম সুমনবলেন, ‘তাদের সঙ্গে আমার সাক্ষাৎকারটি বেশ উপভোগ্য ছিল। তাদের বেশ পজিটিভ আর সিরিয়াস মনে হলো পুরো প্রজেক্টটি নিয়ে। তবে আমি চূড়ান্ত হয়েছি কিনা, সেটি এখনও নিশ্চিত নই। তারা বলেছেন শিগগিরই জানাবে। আমিও অপেক্ষায় থাকলাম। হলে ভালো, না হলে ক্ষতি কি! ৮৩ কোটি টাকা দিয়ে বড় পর্দায় কথাসাহিত্যিক কাজী আনোয়ার হোসেনের ‘মাসুদ রানা’ আনছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবিটির বিভিন্ন চরিত্রের জন্য বেশ কিছু তারকাকে ইতোমধ্যে চূড়ান্ত করা হয়েছে। হলিউডসহ এতে থাকছেন বিশ্বের আলোচিত সব শিল্পী। অভিনয় করতে যাচ্ছেন রেসলিং দুনিয়ার ভয়ঙ্কর তারকা দ্য গ্রেট খালি। থাকছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ ছবির খলনায়ক ড্যানিয়েল বার্নহার্ডও। এছাড়াও আছেন ‘আয়রন ম্যান ২’-খ্যাত হলিউডের জাঁদরেল অভিনেতা মিকি রোর্ক, গ্যাব্রিয়েল্লা রাইট, মাইকেল প্যারেসহ বেশ ক’জন তারকা। জাজের দাবি, এতে থাকছেন বলিউডের শ্রদ্ধা কাপুরও। জাজ মাল্টিমিডিয়া জানায়, ছবিতে ভিলেন হিসেবে থাকবেন খালি। ছবির উল্লেখযোগ্য চরিত্রগুলো হলো- মাসুদ রানা, রুপা, সুলতা, কবির চৌধুরী ও রাহাত খান। চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হলিউডের ডিরেক্টর আসিফ আকবর। এই নির্মাতা যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি থেকে ফিল্ম মেকিংয়ের ওপর উচ্চতর পড়াশোনা করেছেন। ইতোমধ্যে তিনি হলিউডে ৩টি সিনেমা পরিচালনা করেছেন।

ছবির সহ-প্রযোজক হিসেবে আছে হলিউডের সিলভার লাইন। মাসুদ রানা সিরিজের প্রথম পর্ব ‘ধ্বংস পাহাড়’ নিয়ে চলচ্চিত্রটি নির্মিত হচ্ছে। এর ইংরেজি নাম ‘এমআর-৯’ আর বাংলা নাম হবে ‘মাসুদ রানা’। শুটিং হবে মরিশাস, থাইল্যান্ড ও বাংলাদেশে। ছবিটি ইংরেজি ও বাংলা ভাষায় মুক্তি পাবে। পরে অন্য ভাষায় ডাবিং বা সাবটাইটেল হবে। এটি বিশ্বব্যাপী মুক্তি দেওয়া হবে ২০২০ সালে।

Share.

Leave A Reply