শূল্ক বৃদ্ধি: আমেরিকাকে জবাব দেবে ফ্রান্স এবং ইইউ

0

এফএনএস বিদেশ : ফ্রান্সের পণ্যসামগ্রীর উপর আমেরিকা যদি বাড়তি শূল্ক আরোপ করে তাহলে প্যারিস এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন ওয়াশিংটনের বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেবে। ফ্রান্স সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী এ তথ্য জানিয়েছেন। মার্কিন প্রশাসন সোমবার হুমকি দিয়েছে, ফ্রান্সের ২৪০ কোটি ডলার মূল্যের পণ্যের ওপরে শতকরা ১০০ ভাগ শাস্তিমূলক শূল্ক আরোপ করা হতে পারে। এসব পণ্যের মধ্যে রয়েছে মদ, পনির এবং বিভিন্ন ধরনের হ্যান্ডব্যাগ। আমেরিকা যদি এসব পণ্যের উপর শূল্ক আরোপ করে তাহলে মার্কিন প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানি যেমন গুগল, অ্যামাজন এবং ফেইসবুক ফ্রান্সের শাস্তিমূলক করের আওতায় আসবে। গত সোমবার মার্কিন বাণিজ্য প্রতিনিধির অফিস থেকে বলা হয়েছে, তাদের তদন্তে এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে যে, মার্কিন এসব কোম্পানির উপরে ফ্রান্স অস্বাভাবিক মাত্রায় করারোপের চিন্তা করছে। গত মঙ্গলবার  রেডিও ক্লাসিক-এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে ফ্রান্সের অর্থমন্ত্রী ব্রুনো লা মারি আমেরিকার অগ্রহণযোগ্য হুমকির সমালোচনা করে বলেন, আমেরিকায যদি নতুন করে ফ্রান্সের পণ্যসামগ্রীর উপর বাড়তি শূল্ক আরোপ করে তাহলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন পাল্টা ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত রয়েছে। ফ্রান্সের উপ অর্থমন্ত্রী অ্যাগনেস প্যানিয়ের রানচের জানান, ফরাসি সরকার মার্কিন প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানিগুলোর উপর থেকে ডিজিটাল শূল্ক পরিকল্পনা প্রত্যাহার করবে না। তিনিও একটি রেডিও চ্যানেলকে বলেন, ফরাসি সরকার এ বিষয়টিতে আমেরিকার বিরুদ্ধে যুদ্ধংদেহী অবস্থান গ্রহণ করেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর বাণিজ্য ক্ষেত্রে এক ধরনের যুদ্ধের নীতি গ্রহণ করেছেন। এর আলোকে চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং আরো কয়েকটি দেশের সঙ্গে তিনি বাণিজ্যযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছেন।

Share.

Leave A Reply