মাদকের খোলা বাজার আটঘরিয়া অভিভাবকেরা তাকিয়ে প্রশাসনের দিকে

0

আটঘরিয়া প্রতিনিধি : মাদকের জোয়ারে ভাসছে আবারও আটঘরিয়া উপজেলা। যেনো এটি পুরোটায় মাদকের খোলা বাজার। উপজেলা সদর সহ দেবোত্তর, দেবোত্তর ঝোড়পাড়া,আটঘরিয়া, গোড়রী, মতিঝিল, মতিঝিল গনির বটতলা, শ্রীকান্তপুর, পুস্তিগাছা, কয়রাবাড়ী, ডেঙ্গারগ্রাম, একদন্ত, সড়াবাড়িয়া,হুজুরের ঢাল, খিদিরপুর, পারখিদিরপুর, রামচন্দপুর, রামেশ^রপুর বাজার (আরপি বাজার) সহ বিভিন্ন বাজারের আনাচে কোনাচে প্রকাশ্যে ও গোপনে কিছু ক্ষমতাসীদলের নেতাদের ছত্র ছায়ায় দেদারচ্ছে বিক্রি হচ্ছে গাঁজা, ইয়াবা, ফেন্সিডিল নেশা জাতীয় দ্রব্য। উঠতি বয়সের তরুন যুবক ও স্কুল কলেজগামী ূছাত্ররা মাদকের সর্বনাশা ছোবলে পড়ে বিপদগামী হচ্ছে ফলে অভিভাবকরা দিশেহারা হয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠার মধ্যে রয়েছে। সর্বনাশা এই মাদকের কড়াল গাসে ধ্বংস হচ্ছে তরুন যুবক থেকে বৃদ্ধরা। বিষয়টি প্রশাসনের জরুরী পদপেক্ষ নেওয়া দরকার বলে মনে করছেন এলাকার সচেতন মহল। ভূক্তভোগী ও অন্যান্য সূত্রে জানা গেছে, মাঝে মধ্যে পুলিশের পক্ষ থেকে মাদক বিরোধী সাঁড়াসী অভিযান চলাকালে মাদক ব্যবসা কিছুটা কমেছিলো। কিন্তু হঠাৎ করে পুলিশ নিরব থাকায় মাদক দ্রব্য ব্যবহার ও বিক্রি পূর্বে সব রেকড ছাড়িয়ে গেছে। উপজেলা সদর সহ  ৫টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌর সভায় কিছু চিহিৃত স্থানে গিয়ে গাঁজা ইয়াবা ফেন্সিডিল মাদক সহ অন্যান্য মাদক দ্রব্যেও ছদ্মনাম ধরে ডাকা হলেই নিদিষ্ট লোকজন সেই মাদক দব্য নিয়ে হাজির হয়। দেশী মদের পাশাপাশি বিদেশী বিভিন্ন মদের ব্যবসার সঙ্গে উচুতলায় মুখ চেনা কিছু লোক জড়িত থেকে সবার চোখে ধুলো দিয়ে এই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। তবে এলাকার সচেতন মহল বলছেন, মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত অদিকাংশই বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ছাত্র ছায়ার থেকে ব্যবসা করছেন। মাঝে মধ্যে এদের বিরুদ্ধে পুলিশ ব্যবস্থা গ্রহন করতে চাইলে দতারকি পাটির অপব্যবহারের কারণে তারা থেকে যাচ্ছে ধরা ছোয়ার বাইরে। তবে এলাকার সচেতন মহল বরছেন, পুলিশ পূর্বেও মতো সাঁড়াসি অভিযান চালালে কিছুটা নিয়ন্তণে আসবে বলে মনে করছেন তারা।

Share.

Leave A Reply