বিদেশিদের থেকে ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি: সৌরভ গাঙ্গুলী

0

এফএনএস স্পোর্টস: করোনাকালের ক্রিকেট সিরিজগুলোতে সবাইকে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে। যাতে বেশিরভাগ ক্রিকেটার বিরক্ত। মাসের পর মাস কঠিন জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকা অবশ্যই কঠিন। মাঠ থেকে হোটেল, এর বাইরে খেলোয়াড়দের যাওয়ার উপায় নেই। ফলে খেলোয়াড়দের মধ্যে ব্যাপক মানসিক চাপ তৈরি হচ্ছে। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি পর্যন্ত এর নিন্দা করেছেন। যদিও বিসিসিআই প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলী মনে করেন, বিদেশিদের থেকে ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি। সৌরভ বলেন, ‘দীর্ঘ ক্রিকেট জীবনে অনেক বিদেশির বিপক্ষে খেলেছি। তারা শুধু মানসিক অবসাদে থাকার অজুহাত দেয়। সেই জায়গা থেকে আমাদের ভারতীয়দের সহ্য ক্ষমতা অনেক বেশি। গত ছয়-সাত মাসে ক্রিকেটারদের কাছে জীবন বেশ কঠিন হয়ে পড়েছে। জৈব বলয়ে থেকে খেলার জন্য মাঠ ও টিম হোটেলের ঘর ছাড়া তাদের অন্য কোথায় যাওয়ার উপায় নেই। এই বলয়ে থাকতে হলেও পেশাদার জগতে সবাইকে মাঠে গিয়ে নিজেদের মেলে ধরতে হয়। এটা আরও বেশি চাপের ব্যাপার। সত্যি বলতে করোনার জন্য খেলোয়াড়দের জীবন একেবারে বদলে গেছে।’ উদাহরণ হিসেবে কয়েক মাস আগে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ আফ্রিকা সফর বাতিল করে দেওয়ার প্রসঙ্গও টেনে সৌরভ বলেন, ‘ভারতের বিপক্ষে সিরিজের পর অস্ট্রেলিয়ার কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তারা সেই সফর বাতিল করে দেয়। দেখুন কোভিডের আতঙ্ক সব জায়গায় রয়েছে। কিন্তু খেলা ও জীবন তো চালিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আর সেটা করার জন্য মানসিকভাবে হতে হবে চাঙ্গা। সেটার জন্য আলাদা প্রস্তুতি দরকার’ এই প্রসঙ্গে আলোচনা করতে গিয়ে নিজের ক্রিকেট জীবনের খারাপ সময়ের কথাও তুলে ধরেছেন ভারতের সাবেক সফলতম এই অধিনায়ক, ‘টেস্টে অভিষেক হওয়ার আগে একরকম চাপ ছিল। যখন দলে প্রতিষ্ঠা পেলাম তখন অন্য রকম চাপ তৈরি হয়েছিল। এরপর যখন অধিনায়ক হলাম তখন চাপ আরও বাড়ল। ২০০৫ সালে দল থেকে বাদ যাওয়া কিংবা প্রত্যাবর্তনের চাপ ছিল অনেক বেশি কঠিন। তাই পেশাদার জগতে টিকে থাকতে হলে চাপ নেওয়ার মানসিক ও শারীরিক শক্তি থাকতেই হবে।’

Share.

Leave A Reply