বাঁচলেন না অগ্নিদগ্ধ চিকিৎসক রাজীব

0

এনএনবি : সাত দিন আগে ঢাকার হাতিরপুলে একটি বাসায় অগ্নিদগ্ধ চিকিৎক রাজিব ভট্টাচার্য (৩৬) মারা গেছেন।

মঙ্গলবার সকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে তার মৃত্যু হয় বলে আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল জানান।

একই ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ তার স্ত্রী আনুশকা ভট্টাচার্য (৩২) এখনও চিকিৎসাধীন।

পার্থ শংকর পাল বলেন, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাজিব মারা যান। তার শরীরের ৮৭ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। তার স্ত্রী আনুশকার শরীরের ২০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

রাজিব বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোসার্জারি বিভাগের চিকিৎসক ছিলেন। আনুশকা শ্যামলীর সেন্ট্রাল মেডিকেল কলেজের চক্ষু বিভাগের রেজিস্ট্রার। তারা হাতিরপুল ইস্টার্ন প্লাজার পেছনের একটি বাড়ির তৃতীয় তলায় থাকতেন।

বুধবার প্রথম প্রহরে সেখান থেকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।

কলাবাগান থানার ওসি পরিতোষ চন্দ্র জানিয়েছেন, “রাতে রাজিব একটি বড় বোতল থেকে ছোট বোতলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ঢালছিলেন। তখন বোতল থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার পড়ে মশার কয়েল থেকে না অন্য কোনোভাবে আগুন ধরে যায়।”

করোনাভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে ঘরে ঘরে স্যানিটাইজারের ব্যবহার বাড়লেও তা দাহ্য বলে সতর্ক করে আসছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই চিকিৎসক দম্পতির ৫ বছর বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে। সে কয়েক সপ্তাহ ধরে কুমিল্লার দেবিদ্বারে দাদা বাড়িতে আছে।

Share.

Leave A Reply