নতুন চূড়ায় উইলিয়ামসন, কোহলিকে ছাড়িয়ে স্মিথ

0

এফএনএস স্পোর্টস: এক নম্বর হওয়ার পর লড়াই নিজেকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। সেখানে এবার কেন উইলিয়ামসন পা রাখলেন নতুন চূড়ায়। নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক ও স্টাইলিশ এই ব্যাটসম্যান অর্জন করলেন নিজের ক্যারিয়ার সেরা রেটিং পয়েন্ট। তার পিছু ছুটে শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধারের চ্যালেঞ্জে এক ধাপ এগোলেন স্টিভেন স্মিথ। বিরাট কোহলিকে তিনে নামিয়ে আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে স্মিথ নিজেকে তুলে নিলেন দুইয়ে। অস্ট্রেলিয়া-ভারতের সিডনি টেস্ট, নিউ জিল্যান্ড-পাকিস্তানের ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট ও দক্ষিণ আফ্রিকা-শ্রীলঙ্কার জোহানেসবার্গ টেস্টের পারফরম্যান্স বিবেচনায় নিয়ে আইসিসির সবশেষ র‌্যাঙ্কিং প্রকাশিত হয়েছে মঙ্গলবার। ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের ডাবল সেঞ্চুরিতে ২৯ রেটিং পয়েন্ট পেয়ে উইলিয়ামসনের রেটিং পয়েন্ট এখন ৯১৯। তার ক্যারিয়ারের তো বটেই, নিউ জিল্যান্ডের ইতিহাসেও কারও ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রেটিং পয়েন্ট এটি। ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে উইলিয়ামসনেরই ৯১৫ ছিল কিউইদের আগের সর্বোচ্চ। নিউ জিল্যান্ডের হয়ে ব্যক্তিগত রেটিং পয়েন্টে ৯০০ ছোঁয়ার কৃতিত্ব আছে আর কেবল স্যার রিচার্ড হ্যাডলির। সর্বকালের সেরা বোলারদের একজন বলে বিবেচিত হ্যাডলি ১৯৮৫ সালের ডিসেম্বরে বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে অর্জন করেছিলেন ৯০৯ রেটিং পয়েন্ট। ভারতের বিপক্ষে সিডনি টেস্টে ১৩১ ও ৮১ রানের দুটি ইনিংস খেলে স্মিথের প্রাপ্তি ২৩ রেটিং পয়েন্ট। আবার তিনি স্পর্শ করেছেন ৯০০ রেটিং পয়েন্ট। তিন থেকে উঠে এসেছেন দুই নম্বরে। এই সিরিজের প্রথম টেস্টের পর থেকে ছুটিতে থাকা বিরাট কোহলি হারিয়েছেন আরও ৯ রেটিং পয়েন্ট। ৮৭০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে এখন ভারতীয় অধিনায়ক আছেন তিনে। সিডনি টেস্টে ৯১ ও ৭৩ রানের ইনিংস খেলে মার্নাস লাবুশেন পেয়েছেন নিজের ক্যারিয়ার সেরা রেটিং পয়েন্ট, ৮৬৬। র‌্যাঙ্কিংয়ে তার অবস্থান আগের মতোই চার নম্বরে। এই টেস্টের জোড়া ফিফটিতে দুই ধাপ এগিয়ে চেতেশ্বর পুজারা উঠেছেন আট নম্বরে। না খেলেও দুই ধাপ এগিয়ে বেন স্টোকস আছেন ছয়ে। ক্রাইস্টচার্চে ১৫৭ রানের ইনিংস খেলে তিন ধাপ এগিয়ে নিউ জিল্যান্ডের হেনরি নিকোলস উঠেছেন ৯ নম্বরে। তিন ধাপ পিছিয়ে দশে নেমেছেন ডেভিড ওয়ার্নার। এছাড়াও ৭ ধাপ করে এগিয়ে ১৩ নম্বরে উঠেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডিন এলগার, ১৮ নম্বরে পাকিস্তানের আজহার আলি। ১৯ ধাপ এগিয়ে রিশাভ পান্তের অবস্থান ২৬তম। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে আগের মতোই শীর্ষ চারে আছেন প্যাট কামিন্স, স্টুয়ার্ট ব্রড, নিল ওয়্যাগনার ও টিম সাউদি। পরিবর্তন এসেছে পরের জায়গায়। তিন ধাপ এগিয়ে পাঁচে উঠেছেন জশ হেইজেলউড, তিন ধাপ পিছিয়ে আটে নেমে গেছেন তার সতীর্থ মিচেল স্টার্ক। না খেলেও তিন ধাপ এগিয়ে সাতে উঠেছেন জেমস অ্যান্ডারসন। ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ১১ উইকেট নিয়ে ৭ ধাপ এগিয়ে কাইল জেমিসন আছেন ২১ নম্বরে। নিউ জিল্যান্ডের নতুন সেনসেশন এই এক টেস্ট থেকেই পেয়েছেন ১১৬ রেটিং পয়েন্ট! অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়েও জেমিসনের জন্য আছে সুখবর। মাত্র ৬ টেস্ট খেলেই জায়গা করে নিয়েছেন তিনি ৫ নম্বরে। ২৬ বছর বয়সী পেসারের ৬ টেস্টে শিকার ৩৬ উইকেট, ৬ ইনিংস খেলে রান ৫৬.৫০ গড়ে ২২৬। অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে যথারীতি শীর্ষে আছেন বেন স্টোকস। জেসন হোল্ডারকে তিনে নামিয়ে রবীন্দ্র জাদেজা উঠেছেন দুইয়ে। চারে আগের মতোই সাকিব আল হাসান।

 

Share.

Leave A Reply