দীপকের জীবনাবসান

0

শহর প্রতিনিধি : শহরের সর্বমহলে পরিচিত মুখ দীপক পালের জীবনাবসান ঘটেছে। দীপক শহরের জয়কালী মন্দির পাড়ার প্রয়াত পরেশ পালের ছেলে। তার চায়ের দোকান রয়েছে জয়কালী মন্দিরের ঠিক পাশে। তার দোকানে চা পান করতে যেতেন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ,ব্যবসায়ী, সাংবাদিক,সাংস্কৃতিক কর্মীসহ নানা শ্রেনী পেশার মানুষ। কিছু মানুষের এক আড্ডাস্থলের নাম ছিলো দীপকের চায়ের দোকান। গতকাল সকাল দশটায় নিজবাড়িতে তার জীবনাবসান ঘটে। তিনি দীর্ঘদিন ক্যান্সারে ভূগছিলেন। তার বয়স হয়েছিলো ৪৯ বছর। তিনি মা, স্ত্রী, ২ মেয়ে, ১ ভাই, ২ বোন, আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার প্রয়াত হবার খবর জেনে অসংখ্য মানুষ তার বাড়িতে যান ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। গতকাল বিকালে শালগাড়িয়া মহাশ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। এদিকে দীপক পালের জীবনাবসানে সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স, পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি শিবজিত নাগ,সম্পাদক আঁখিনূর ইসলাম রেমন, সাবেক সম্পাদক আহমেদ উল হক রানা, জয়কালী মন্দির কমিটির সভাপতি বিনয় জ্যোতি কুন্ডু, সাধারন সম্পাদক প্রলয় চাকি, গণশিল্পী সংস্থার সাবেক সাধারন সম্পাদক বিপ্লব ভৌমিক, প্রথম আলোর প্রতিনিধি সরোয়ার উল্লাস, গাজি টিভি ও বাংলা ট্রিউবিনের জেলা প্রতিনিধি ইমরোজ খন্দকার বাপ্পি, এস এ টিভির প্রতিনিধি কলিট তালুকদার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আল মামুন হোসেন রিমন, যমুনা টিভির জেলা প্রতিনিধি ও দৈনিক ইছামতির প্রধান প্রতিবেদক ছিফাত রহমান সনম প্রমূখ গভীর শোক প্রকাশ করে শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

Share.

Leave A Reply