ট্রাম্পের উস্কানিতেই হামলা: ওবামা

0

এফএনএস বিদেশ : যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উস্কানিতেই দেশটির পার্লামেন্ট ভবনে তার সমর্থকরা তা-ব চালিয়েছে। এই ঘটনাকে আমেরিকানদের জন্য চরম অসম্মান ও লজ্জাজনক বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। পুরো ঘটনার জন্য ট্রাম্পকেই দায়ী করেছেন ওবামা। তিনি বলেন, ট্রাম্পই উস্কানি দিয়েছেন। ওবামা বলেন, তিনি একটানা নির্বাচন নিয়ে অপপ্রচার করে গেছে। এই সহিংসতা সেটারই ফল। সমর্থকদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন যে কেবল ডেমোক্র্যাটদের জালিয়াতির কারণে তিনি বাইডেনের কাছে নির্বাচনে হেরে গেছেন। কিন্তু তার এই অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। বুধবার বাইডেনের নির্বাচনী জয়কে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিতে কংগ্রেসে যৌথ অধিবেশন চলাকালে ক্যাপিটল হিলে ঢুকে যায় ট্রাম্প সমর্থকরা। এ সময় তারা ব্যাপক তা-ব চালায়। পরে একজন নারীর গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই হামলার পর পার্লামেন্টের অধিবেশন কয়েক ঘণ্টার জন্য স্থগিত করা হয়। এমনকি ওয়াশিংটনে ১২ ঘণ্টার কারফিউও জারি করা হয়। তা-বের পর অধিবেশন শুরু হলে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলের ইতিহাসে একটি কালোদিন’ এটি। ক্যাপিটল হিলে তা-ব শুরু হলে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ‘এগিয়ে আসতে’ এবং এই সহিংসতার নিন্দা জানাতে আহ্বান জানায় ডেমোক্রেটরা। তবে অন্তত দুই ঘণ্টা তা-ব চলার পর সমর্থকদের ‘ঘরে ফিরে যেতে’ আহ্বান জানান ট্রাম্প। এর আগে বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে ক্যাপিটল হিলে ঢুকে যায়। এ সময় তারা ট্রাম্প ও যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা নাড়াতে এবং চিৎকার করতে থাকে। তারা চিৎকার করে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল বাতিলের দাবি জানাতে থাকে। এদিকে মেট্রোপলিটন পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, ক্যাপিটল হিলে গোলমালের সময় গুলিবিদ্ধ হওয়ার একজন বেসামরিক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া দুটি সন্দেহভাজন বিস্ফোরক ডিভাইস পাওয়া গেছে বলেও জানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে সেগুলো নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে বলেও জানায় তারা।

Share.

Leave A Reply