চলে গেলেন ভারতীয় কিংবদন্তি

0

এফএনএস স্পোর্র্টস: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বাদ কখনও পাননি রাজিন্দার গোয়েল। তার পরও ভারতীয় ক্রিকেটে তিনি কিংবদন্তি। রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসের সফলতম বোলার মাঠের লড়াই শেষে দীর্ঘদিন ধরে লড়ছিলেন নানা রোগের সঙ্গে। অবশেষে সবকিছুর সমাপ্তি। ৭৭ বছর বয়সে রোববার মারা গেছেন সাবেক এই বাঁহাতি স্পিনার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১৫৭ ম্যাচ খেলে ৭৫০ উইকেট নিয়েছেন গোয়েল। ৫ উইকেট নিয়েছেন ৫৯ বার, ম্যাচে ১০ উইকেট ১৮ বার। রঞ্জি ট্রফিতে নিয়েছেন ৬৩৭ উইকেট, ঐতিহ্যবাহী এই আসরের ইতিহাসের সর্বোচ্চ। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলে গেছেন ৪৩ বছর বয়স পর্যন্ত। ঘরোয়া ক্রিকেটে বছরের পর বছর অসাধারণ সাফল্যের পরও তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলতে পারেননি মূলত, সেই সময় বিষেন সিং বেদি খেলছিলেন বলে। বেদি সর্বকালের সেরা বাঁহাতি স্পিনারদের একজন, তার জায়গা নেওয়া ছিল কঠিন। তবে বেদি নিজেই বলছেন, গোয়েল ছিলেন দুর্ভাগা। “ ভারতের হয়ে আমার যখন অভিষেক, সত্যি বলতে, তিনি আমার চেয়ে অনেক ভালো বোলার ছিলেন। আমি কেবল ভাগ্যবান বলে সুযোগটি পেয়েছিলাম। এমনকি ১৯৭৪-৭৫ মৌসুম ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শৃঙ্খলাজনিত কারণে আমি যখন দলের বাইরে, তখনও তাকে খেলায়নি। তাকে সুযোগ দিলে হয়তো আমরা জিততাম।”গোয়েলের মৃত্যুর খবর জেনে আরেক ভারতীয় কিংবদন্তি দিলিপ ভেংসরকার জানাচ্ছেন, ঘরোয়া ক্রিকেটে তাদেরকে নাকানিচুবানি খাইয়ে ছাড়তেন গোয়েল। সাবেক অধিনায়ক ও ভারতীয় বোর্ডের প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলি বলেছেন, “ভারতীয় ক্রিকেট আজ হারিয়েছে ঘরোয়া ক্রিকেটের এক মহারথীকে। তার চোখধাঁধানো ক্যারিয়ারই কথা বলছে তার হয়ে।” ২০১৭ সালে সিকে নাইডু আজীবন সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছিলেন গোয়েল। তার ছেলে নিতিন গোয়েলও এক যুগ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেছেন হরিয়ানার হয়ে। নিতিন ছিলেন ব্যাটসম্যান।

Share.

Leave A Reply