ইসরায়েল-ইউএই ফ্লাইট: সৌদি সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন ট্রাম্প

0

এফএনএস বিদেশ : ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) মধ্যে সরাসরি ফ্লাইট চলাচলের জন্য সৌদি আরবের আকাশপথ খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্প সৌদি আরবের বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজকে ফোন করে তার এ প্রতিক্রিয়া জানান বলে হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন। এ সময় ট্রাম্প সৌদি বাদশার সঙ্গে আঞ্চলিক সুরক্ষা বাড়ানোর উপায় নিয়েও আলোচনা করেন বলে জানিয়েছেন মুখপাত্র জাড ডিয়ার। পারস্য উপসাগরীয় অন্যান্য আরব দেশের সঙ্গে ইসরায়েলের বিরোধ নিরসনে সৌদি আরবকে মধ্যস্থতা করারও অনুরোধ জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। গত মাসে ইসরায়েল এবং আরব আমিরাতের মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে একটি শান্তিচুক্তি হয়। এরপর ৩১ অগাস্ট প্রথমবারের মতো ইসরায়েলি ও মার্কিন কর্মকর্তাদের নিয়ে তেল আবিব থেকে একটি বাণিজ্যিক ফ্লাইট সৌদি আরবের ওপর দিয়ে সরাসরি আমিরাতের আবু ধাবিতে যায়। ইসরাইলি ফ্লাইটের জন্য সৌদি আরবের আকাশসীমা নিষিদ্ধ থাকলেও এই বিশেষ ফ্লাইটটিকে তাদের আকাশসীমা ব্যবহার করার অনুমতি দেয় রিয়াদ। এর কয়েকদিনের মধ্যে আরব আমিরাতে যাতায়াতের জন্য যে কোনও ফ্লাইটকে আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দিতে রাজি হয় সৌদি আরব। এতে আরব আমিরাতগামী ইসরায়েলি ফ্লাইটের জন্য সৌদি আকাশসীমা উন্মুক্ত হয়। তবে এর আগে ২০১৮ সালে এয়ার ইন্ডিয়ার ফ্লাইটকে তেল আবিবে যাতায়াতের অনুমতি দিয়েছিল সৌদি আরব। ইসরায়েল এবং আরব আমিরাতের মধ্যে বিমান চলাচলের জন্য আকাশসীমা খোলা রাখার সৌদি সিদ্ধান্তের ফলে ওই দুই দেশের মধ্যে যাতায়াতে কয়েক ঘণ্টা সময় কম লাগবে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। সৌদি আরবের পর মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ বাহরাইনও আরব আমিরাতে যাতায়াতের জন্য সব ফ্লাইটকে তাদের আকাশপথ ব্যবহারের অনুমতি দেয়। এ অনুমতির আওতায় আমিরাতগামী ইসরায়েলি ফ্লাইটগুলোও বাহরাইনের আকাশ ব্যবহার করতে পারবে।

01-

Share.

Leave A Reply