ইনস্টাগ্রাম পোস্টে কত করে পান রোনালদো-মেসিরা?

0

এফএনএস স্পোর্টস: ইনস্টাগ্রাম এখন আর শুধুই ব্যক্তিগত পোস্টের জায়গা নয়; অন্তত ক্রীড়া তারকাদের জন্য তো নয়ই। তারা নিজেদের ছবি পোস্ট করার পাশাপাশি বিভিন্ন পণ্যের প্রচারণামূলক পোস্ট দেন এখন সেখানে। বিনিময়ে পকেটে ঢুকে যায় অর্থ। ইনস্টাগ্রামে একেকটা পোস্ট করার জন্য কত করে কামান মেসি-রোনালদোরা? এর একটা হিসাব বের করেছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিশেষজ্ঞ প্রতিষ্ঠান হপার এইচকিউ। হপার এইচকিউয়ের মতে, ইনস্টাগ্রামে পণ্যের দূতিয়ালি করার জন্য প্রতি পোস্ট বাবদ ৯ লাখ ৭৫ হাজার ডলার আয় করেন রোনালদো। ইনস্টাগ্রামে রোনালদোর অনুসারীর সংখ্যা মাথা ঘুরিয়ে দেওয়ার মতোইÑ১৭ কোটি ৭০ লাখের মতো। রোনালদোর বর্তমান ও সাবেক তিন ক্লাবের (জুভেন্টাস, রিয়াল মাদ্রিদ ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড) অনুসারী যোগ করলেও এত হবে না। যাকে এত মানুষ অনুসরণ করছে, তাকে দিয়ে কোনো পণ্যের প্রচার ও প্রসারের সুযোগ কেন নেবে না নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠান? মার্কেটিংয়ের এক অব্যর্থ কৌশল হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে এখন এই পদ্ধতি। বিশ্বের নামীদামি সব ব্র্যান্ডও এখন এই পদ্ধতিতে ঝুঁকেছে। আর লাভ হচ্ছে রোনালদোদের। ওদিকে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা নেইমার প্রতি পোস্ট বাবদ নিজের দূতিয়ালি করা ব্র্যান্ডগুলোর কাছ থেকে নেন ৭ লাখ ২২ হাজার ডলার করে। ইনস্টাগ্রামে নেইমারের অনুসারী ১৭ কোটি ২০ লাখ। তালিকার তৃতীয় স্থানে থাকা লিওনেল মেসির অনুসারী আবার নেইমারের চেয়ে ৩০ লাখ বেশি। তা সত্ত্বেও প্রতি পোস্ট বাবদ মেসি নেন প্রায় ৬ লাখ ৫০ হাজার ডলার করে। খেলা ছেড়েছেন আজ থেকে অর্ধ যুগ আগে, তাও এই ‘ব্যবসা’য় ডেভিড বেকহামের স্থান বেশ ওপরে। চিরযৌবনা এই খেলোয়াড় ইনস্টাগ্রামে প্রতি পোস্ট বাবদ ব্র্যান্ডগুলোর কাছে ৩ লাখ ৫৭ হাজার ডলার করে হাঁকেন। তালিকার পঞ্চম স্থানে আছেন যুক্তরাষ্ট্রের বাস্কেটবল কিংবদন্তি লেব্রন জেমস। ওদিকে শীর্ষ দশে থাকা খেলোয়াড়দের একমাত্র ক্রিকেটার বিরাট কোহলি, প্রতি পোস্ট বাবদ যিনি নেন দুই লাখ ডলার করে।

02-Messi

Share.

Leave A Reply