ইংল্যান্ড ও ভারতের মাটিতে ভাল করার আক্ষেপ স্মিথের

0

এফএনএস স্পোর্টস: অবসরের আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে অ্যাশেজ ও ভারতের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ নিতে চান অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক ও দলের সেরা ব্যাটসম্যান স্টিভেন স্মিথ। এই দুই দেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়কে পাহাড় সমান অর্জন বলে অভিহিত করেছেন স্মিথ। গেল বছর ইংল্যান্ডের মাটিতে অ্যাশেজ সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন স্মিথ। ৪ টেস্টে ৭৭৪ রান করেছিলেন তিনি। ইংল্যান্ডের দ্রুত গতির পেসার জোফরা আর্চারের বলে মাথায় আঘাত পাওয়ায় তৃতীয় টেস্টে খেলতে পারেননি স্মিথ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দু’বার এগিয়ে গিয়েও, শেষ পর্যন্ত পাঁচ ম্যাচের সিরিজটি ২-২ সমতায় শেষ করে টিম পাইনের নেতৃত্বাধীন অস্ট্রেলিয়া। ওভালে সিরিজের শেষ ম্যাচটি হারে পাইন-স্মিথ-ওয়ার্নাররা। তবে অ্যাশেজ সিরিজ নিজেদের কাছে রাখতে সক্ষম হয় অসিরা। কারণ তার আগে সিরিজটি নিজেদের মাটিতে জিতেছিলো অস্ট্রেলিয়া। স্মিথ জানান, এটি তাকে হতাশ করেছে এবং ক্যারিয়ারের অর্জন অসম্পুর্ন থেকে গেছে। এ সপ্তাহে আনপ্লেয়েবল পডকাস্টকে স্মিথ বলেন, ‘অ্যাশেজ সিরিজটি ধরে রাখাটা আমাদের জন্য বিশেষ কিছু ছিলো। দুর্ভাগ্যক্রমে আমরা জিততে পারিনি, কিন্তু আমি এখনও তা করতে চাই। আমার ব্যক্তিগত অভিমত হচ্ছে অর্জনটি এখনো অসম্পুর্ন রয়ে গেছে। অ্যাশেজ ধরে রাখাটা দুর্দান্ত, কিন্তু আপনি যখন সিরিজ জিততে চাইবেন তখন এটা ঠিক মানানসই নয়। আমরা সিরিজ ড্র করেছি ভাল, কিন্তু খুব বড় কিছু নয়।’ ডস্টভ ওয়াহর নেতৃত্বে ইংল্যান্ডের মাটিতে সর্বশেষ ২০০১ সালে অ্যাশেজ জিতেছিলো অস্ট্রেলিয়া। ২০২৩ সালের মাঝামাঝি সময়ে ইংল্যান্ডে আবারো অ্যাশেজ হবার আগে, আগামী বছর দেশের নিজ দেশের মাটিতে খেলবে অস্ট্রেলিয়া। ইংল্যান্ডের মাটিতে ঐ সিরিজে স্মিথের বয়স ৩৪ হবে। ইংল্যান্ডের পর ভারতের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয় স্মিথের আরও একটি লক্ষ্য। এখন পর্যন্ত ৭৩ টেস্টে ২৬টি সেঞ্চুরিতে ৭২২৭ রান করেছেন অসিদের সাবেক এই অধিনায়ক। স্মিথ বলেন, ‘বড় দু’টি অর্জন করতে হবে, যদি তা করা যায়, তবে এটি বিশেষ কিছু হবে।’ ২০০৪ সালে ভারতের মাটিতে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ জিতেছিলো অস্ট্রেলিয়া। ক্যারিয়ার শেষ করার আগে ভারতের মাটিতেও সিরিজ জয়ের স্বাদ পাবেন বলে মনে করেন স্মিথ, ‘আশা করি, আমি এটিও করতে পারবো, তবে দেখতে হবে কিভাবে যাবো। আমার এখন কিছুটা বয়স হয়েছে। আপনি কখনো জানেন না, আমার কতদিন আছে এবং আপনি এটিও জানেন না, ভবিষ্যতে কি আছে। কিন্তু এটি অবশ্যই চেষ্টা করার মত বিষয়, এটিই সত্যিই।’

Share.

Leave A Reply