আর্থিক সংকট নিয়ে মুখ খুললেন আদিত্য নারায়ণ

0

এফএনএস বিনোদন: প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী উদিত নারায়ণের ছেলে আদিত্য নারায়ণ। সম্প্রতি এই গায়ক-সঞ্চালকের একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ পায়। এতে জানা যায়, করোনার এই দুর্যোগে আর্থিক সংকটে রয়েছেন তিনি। তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাত্র ১৮ হাজার রুপি রয়েছে। সাক্ষাৎকার প্রকাশের পর তা ছড়িয়ে পড়ে। এমনকি বলিউডের অনেকেই তাকে সাহায্যের জন্য ফোন দিয়েছেন। তবে আর্থিক সংকটে থাকার খবরটি সত্য নয় বলে জানিয়েছেন আদিত্য। সাক্ষাৎকারের বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এই সাক্ষাৎকারটি প্রায় দেড় মাস আগের। প্রতিবেদক মহামারির পর শুটিং শুরু ও অফিস চালু হওয়া প্রসঙ্গে আমার কাছে জানতে চায়। বর্তমানে মহামারি আমাদের দৈনন্দিন জীবনযাপন কতটা কঠিন করেছে তা নিয়ে উত্তর দিয়েছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘লকডাউনের আগে একটি নতুন অ্যাপার্টমেন্ট কেনার কথা উল্লেখ করেছিলাম। এজন্য আমাকে ইএমআই পরিশোধ করতে হয়েছে এবং লকডাউন বাড়লে আমরা সবাই ভোগান্তির শিকার হবো। আমি বলেছিলাম, ইএমআই-এর জন্য আমার ৫ লাখ রুপি কেটে নেওয়া হয়েছে এবং মাত্র ১৮ হাজার রুপি বাকি আছে। কিন্তু তার মানে এই নয়, আমি দেওলিয়া হয়ে গেছি এবং আমার কোনো টাকা নেই। দুই দশক টানা কাজ করার পর কীভাবে আমি দেওলিয়া হয়ে যায়?’ সম্প্রতি অভিনেত্রী শ্বেতা আগরওয়ালকে বিয়ের ঘোষণা দিয়েছেন আদিত্য। শোনা যাচ্ছে, খুব শিগগির সাত পাকে বাঁধা পড়বেন তারা। আর্থিক সংকটের বিষয়টি নিয়ে মজা করে আদিত্য নারায়ণ আরো বলেন, ‘আমি ভাবছি, বিষয়টি আমার শ্বশুর বাড়ির লোকজন কীভাবে নিবে। তবে মনে হয় এখন বেশি বেশি উপহার পাবো। অনেকেই আমাকে ফোন করে জিজ্ঞেস করছেন, সাহায্যের প্রয়োজন আছে কিনা। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।’ ইন্ডিয়ান আইডলের গত সিজনের সঞ্চালক ছিলেন আদিত্য। পরবর্তী সিজনেও তাকে এই ভূমিকায় দেখা যাবে। তাকে নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই বলে জানান তিনি। এই গায়ক বলেন, ‘আমি খুব সাধারণ জীবনযাপন করি, তাই একেবারে খারাপ পরিস্থিতিতে পড়ার সম্ভাবনা নেই। আর কীভাবে খরচ করতে হয় আমি জানি। বাড়ি, গাড়ি, সম্পদ দেখানোর মতো ব্যক্তি আমি নই। সবাই দুশ্চিন্তা করছে কারণ তারা আমাকে বিলাসবহুল জীবনযাপন করতে দেখেনি। আমি দেখাইনি তার মানে এই নয় আমার নেই।’॥

 

Share.

Leave A Reply